বৃহস্পতিবার, ০৮ ডিসেম্বর ২০২২, ০৬:০০ পূর্বাহ্ন

ব্রেকিং নিউজ :
প্রতিনিধি আবশ্যক, অনলাইন পত্রিকা আমার সুরমা ডটকমের জন্য প্রতিনিধি নিয়োগ দেয়া হবে। আগ্রহীরা যোগাযোগ করুন : ০১৭১৮-৬৮১২৮১, ০১৬২৫-৬২৭৬৪৩
গাজীপুরের মেয়র মান্নান ফের গ্রেফতার, বিএনপির তীব্র নিন্দা

গাজীপুরের মেয়র মান্নান ফের গ্রেফতার, বিএনপির তীব্র নিন্দা

আমার সুরমা ডটকম গাজীপুর সিটি করপোরেশনের মেয়র অধ্যাপক এমএ মান্নানকে ফের গ্রেফতার করেছে গাজীপুর জেলা গোয়েন্দা পুলিশ। স্থানীয় সরকার মন্ত্রণালয় কর্তৃক মেয়র মান্নানকে বরখাস্তের আদেশ উচ্চ আদালত স্থগিত করায় আগামী রোববার সিটি করপোরেশনে তার অফিস করার কথা ছিল। উচ্চ আদালতের আদেশে দায়িত্ব গ্রহণের দু’দিন আগেই তাকে ফের গ্রেফতার করা হল। তাকে গ্রেফতারের বিষয়টি নিশ্চিত করেন জয়দেবপুর থানার ওসি খন্দকার রেজাউল হাসান রেজা। মেয়রের ঘনিষ্ট সূত্র জানায়, মেয়র এমএ মান্নান শুক্রবার গাজীপুর সিটি করপোরেশনের সালনায় একটি মসজিদ উদ্বোধন করেন। পরে এলাকাবাসীর সাথে কিছুক্ষণ সময় কাটান। এলাকায় মাগরিবের নামাজ শেষে মহানগরীর কোনাবাড়িতে অসুস্থ দলীয় এক কর্মীকে দেখতে রওনা দেন। পথিমধ্যে গাজীপুর গোয়েন্দা পুলিশ তাকে আটক করে।

প্রসঙ্গত, গাজীপুর সিটি করপোরেশনের নির্বাচিত প্রথম মেয়র এমএ মান্নানকে সাময়িক বরখাস্ত করে দেওয়া স্থানীয় সরকার মন্ত্রণালয়ের আদেশ ছয় মাসের জন্য স্থগিত করেছেন হাইকোর্ট। এক রিট আবেদনের শুনানি নিয়ে গত সোমবার দুই বিচারপতির সমন্বয়ে গঠিত হাইকোর্টের একটি বেঞ্চ রুলসহ এ আদেশ দেন।
জয়দেবপুর থানায় করা এক মামলার অভিযোগপত্র গ্রহণের কথা উল্লেখ করে গত বছরের ১৯ আগস্ট মেয়র এমএ মান্নানকে সাময়িক বরখাস্ত করে স্থানীয় সরকার, পল্লী উন্নয়ন ও সমবায় মন্ত্রণালয়। বরখাস্তের প্রজ্ঞাপনে বলা হয়, এমএ মান্নানের বিরুদ্ধে জয়দেবপুর থানায় করা ফৌজদারি মামলার অভিযোগপত্র গাজীপুরের জ্যেষ্ঠ বিচারিক হাকিমের আদালতে ২০১৫ সালের ১২ মে গৃহীত হয়েছে। স্থানীয় সরকার (সিটি করপোরেশন) আইন-২০০৯ (২০০৯ সালের ৬০ নম্বর আইন) এর ধারা ১২ এর উপধারা (১) মোতাবেক সিটি করপোরেশনের মেয়র বা কাউন্সিলরের বিরুদ্ধে ফৌজদারি মামলায় আদালতে অভিযোগপত্র গৃহীত হলে তাকে সাময়িক বরখাস্ত করার বিধান রয়েছে। এই ক্ষমতাবলে এমএ মান্নানকে সাময়িক বরখাস্ত করা হলো।
মন্ত্রণালয়ের এ বরখাস্তের আদেশের বৈধতা চ্যালেঞ্জ করে হাইকোর্টে রিট আবেদন করেন মেয়র মান্নান। এ রিটের শুনানি শেষে প্রজ্ঞাপনের কার্যকারিতা ছয় মাসের জন্য স্থগিত করে রুল জারি করেন হাইকোর্ট।

বিএনপি চেয়ারপারসনের উপদেষ্টা পরিষদের সদস্য এমএ মান্নান গত বছর ৪ ফেব্র“য়ারি রাতে গাজীপুরে যাত্রীবাহী বাসে পেট্রলবোমা হামলার মামলায় ১১ ফেব্র“য়ারি সন্ধ্যায় মেয়র মান্নান ঢাকার বাসভবন থেকে গ্রেপ্তার হন। মোট ২২টি মামলায় মেয়র মান্নান জামিন লাভের পর গত বছরের ২ মার্চ উচ্চ আদালতের আদেশে জামিনে কারামুক্ত হন। বর্তমানে গাজীপুর সিটি করপোরেশনের ভারপ্রাপ্ত মেয়র হিসেবে দায়িত্ব পালন করছেন প্যানেল মেয়র আসাদুর রহমান কিরণ।

গাজীপুর সিটি করপোরেশনের নির্বাচিত মেয়র ও বিএনপি চেয়ারপারসনের উপদেষ্টা কাউন্সিলের সদস্য অধ্যাপক এম এ মান্নানকে আইন-শৃঙ্খলা বাহিনী কর্তৃক গ্রেফতার করা হয়েছে দাবি করে এ ঘটনার তীব্র নিন্দা ও প্রতিবাদ জানিয়েছে বিএনপি। শুক্রবার বিএনপি মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর গণমাধ্যমে পাঠানো এক বিবৃতিতে এ নিন্দা জানান।
বিবৃতিতে বিএনপি মহাসচিব বলেন, “বর্তমান ভোটারবিহীন সরকার এখন দেশ শাসক নয়, তারা মনে হয় নির্মম নিপীড়কে পরিণত হয়েছে। বর্তমান শাসকগোষ্ঠীর নির্মম ও অমানবিক আচরণে সারাদেশটাই এখন একটা বিশাল কারাগারে পরিণত হয়েছে। বিরোধী দলীয় নেতাকর্মীসহ সাধারণ মানুষকে গ্রেফতারের যে হিড়িক চলছে তাতে একথা সন্দেহাতীতভাবে বলা যায় যে, বর্তমান ভোটারবিহীন সরকার তাদের প্রতিহিংসার আগুন চরিতার্থ করতে এবং ক্ষমতা চিরস্থায়ী করতে পাগল হয়ে গেছে। মিথ্যা, বানোয়াট ও রাজনৈতিক উদ্দেশ্যপ্রণোদিত মামলা দায়ের করে কিংবা বিনা কারণে বিরোধী নেতাকর্মীকে গ্রেফতার এখন মনে হয় সরকারের অভ্যাসে পরিণত হয়েছে। গাজীপুর সিটি কর্পোরেশনের মেয়র অধ্যাপক এমএ মান্নানকে জামিনে মুক্ত থাকার পরও আজ রাতে আইন-শৃঙ্খলা বাহিনী কর্তৃক গ্রেফতার সরকারের সেই অভ্যাসেরই বহি:প্রকাশ। কেবলমাত্র প্রতিহিংসার কারণেই একজন জনপ্রিয় রাজনৈতিক নেতা ও গাজীপুর সিটি করপোরেশনের মেয়র এমএ মান্নানকে গ্রেফতার করা হয়েছে। সরকার কর্তৃক গাজীপুর সিটি করপোরেশনের নির্বাচিত মেয়র পদ থেকে এমএ মান্নানের বরখাস্ত আদেশ আ্দালতের মাধ্যমে স্থগিত এবং তিনি জামিনে থাকা অবস্থায় তাঁকে গ্রেফতার সরকারের চরম নির্মমতা ছাড়া আর কিছুই নয়। মিথ্যা মামলা দিয়ে অথবা বিনা অজুহাতে নির্বিচারে গ্রেফতার এবং রিমান্ডে নিয়ে বিরোধী নেতৃবৃন্দকে নির্যাতন করা হচ্ছে। গদি রক্ষায় বিভোর হয়ে তারা সংবিধান স্বীকৃত মানুষের মৌলিক অধিকার ও গণতন্ত্রের বৈশিষ্ট্যগুলোকে ধারাবাহিকভাবে নিশ্চিহ্ন করে দিচ্ছে। বিরোধী দলীয় নেতা-কর্মীসহ সাধারণ মানুষ তাদের জানমালের নিরাপত্তা নিয়ে এখন চরম উদ্বিগ্ন। একটা স্বাধীন দেশে মানুষের বেঁচে থাকার সামান্যতম গ্যারান্টিটুকুও যেন আজ বিলীন হয়ে গেছে। এভাবে একটা দেশ চলতে পারেনা। স্বৈরাচারী সরকারের মুলোৎপাটনে এখন দেশের মানুষের ঐক্যবদ্ধ হওয়া ছাড়া কোনো বিকল্প নেই।”
বিএনপি মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর অবিলম্বে গাজীপুর সিটি করপোরেশনের নির্বাচিত মেয়র ও বিএনপি চেয়ারপারসনের উপদেষ্টা কাউন্সিলের সদস্য অধ্যাপক এমএ মান্নানের বিরুদ্ধে দায়েরকৃত সকল মিথ্যা মামলা প্রত্যাহার এবং তাঁর নি:শর্ত মুক্তির জোর দাবি জানান।

নিউজটি শেয়ার করুন

© All rights reserved © 2017-2019 AmarSurma.Com
Design & Developed BY ThemesBazar.Com
error: