বৃহস্পতিবার, ০৮ ডিসেম্বর ২০২২, ১০:৫৭ অপরাহ্ন

ব্রেকিং নিউজ :
প্রতিনিধি আবশ্যক, অনলাইন পত্রিকা আমার সুরমা ডটকমের জন্য প্রতিনিধি নিয়োগ দেয়া হবে। আগ্রহীরা যোগাযোগ করুন : ০১৭১৮-৬৮১২৮১, ০১৬২৫-৬২৭৬৪৩
পেশা! ইন্টেরিয়র ডিজাইনার

পেশা! ইন্টেরিয়র ডিজাইনার

1440256809_p-3

নুরুল ইসলাম : আমাদের দেশে রয়েছে প্রায় দুই কোটি শিক্ষিত তরুণ-তরুণী। যারা প্রতিনিয়ত চাকরি নামের সোনার হরিণ ধরার জন্য আবেদনপত্র লিখতে লিখতে কাগজসম্পদ ধ্বংস করছে। আর সেই সাথে হতাশার সাগরে হাবুডুবু খাচ্ছে। এ অবস্থায় অনেকেই পেশা নির্বাচনে দ্বিধা-দ্বন্দ্বে ভোগেন, কোথায়, কীভাবে, কী করবেন। বর্তমানে অনেক তরুণ-তরুণীই গতানুগতিক সকাল-বিকাল সময় মেনে সরকারি বা করপোরেট খাতে চাকরি করতে চান না। আবার কেউ কেউ সৃষ্টিশীল কোনো কিছুকে পেশা হিসেবে নির্বাচন করতে চান। এ প্রকৃতির তরুণ-তরুণীদের মধ্যে যারা একটু স্বাধীন ও আয়েসি জীবন-যাপন করতে চান। তারা হতে পারেন ইন্টেরিয়র ডিজাইনার। যা হতে আপনার খুব বেশি সময়ের প্রয়োজন হবে না। স্বল্প সময়ের মধ্যেই হতে পারবেন অন্দর মহল সাজানোর শিল্পীÑ ইন্টেরিয়র ডিজাইনার। শান্তা মরিয়ম ইউনিভার্সিটির ইন্টেরিয়র বিভাগের প্রধান স্থপতি রুবানা সাদিয়া আলম বলেন, বর্তমান যুগে ইন্টেরিয়র ডিজাইন বেশ সম্ভাবনাময় পেশা। এতে খুব অল্প সময়ের মধ্যে সাফল্য অর্জন করা যায়। প্রতিনিয়ত এর চাহিদা বেড়েই চলছে। বিভিন্ন আর্কিটেকচারাল ফার্ম, ইভেন্ট ম্যানেজমেন্ট ফার্ম, ইন্টেরিয়র ডিজাইন ফার্ম, ডেভলপার্স কোম্পানি, পেইন্ট ইন্টেরিয়র, ফার্নিচার ফার্ম, ডেভেলপার্স কোম্পানি, পেইন্ট কোম্পানি, ফার্নিচার কোম্পানিসহ অনেক ক্ষেত্রে ইন্টেরিয়র ডিজাইনারদের প্রচুর চাহিদা রয়েছে। যেমন প্রতি বছর আমাদের ইউভার্সিটি থেকে ১০-১৫ জন ইন্টেরিয়র ডিজাইনার গ্রাজুয়েশন করে বের হচ্ছে। যা দেশের বিভিন্ন ফার্ম ও কোম্পানির চাহিদার তুলনায় খুবই কম।ইন্টেরিয়র ডিজাইন সবাই চায় নিজের ঘরটি মনের মতো করে সাজিয়ে-গুছিয়ে সুন্দর মতো রাখতে। আর ঘর, অফিস, দোকান, হাসপাতালসহ প্রতিটি ঘরের প্রতিটি স্থানকে সম্পূর্ণ কাজে লাগিয়ে সুন্দর, দৃষ্টিনন্দন ও আকর্ষণীয় করে সাজানোই হচ্ছে ইন্টেরিয়র ডিজাইনিং। আর যিনি এ কাজটি সুনিপুণভাবে করে থাকেন। তিনি ইন্টেরিয়র ডিজাইনার। আগে আমাদের দেশে স্থপতিরাই কোনো ভবন নির্মাণ থেকে শুরু করে তার ইন্টেরিয়র ডিজাইনও করতেন। কিন্তু বর্তমানে আর্কিটেকচার ও ইন্টেরিয়র ডিজাইন পৃথকভাবে করা হয়ে থাকে। একটি জায়গা সুন্দরভাবে সাজাতে ইন্টেরিয়র ডিজাইনার গুরুত্ব দিয়ে থাকেন ওই জায়গার স্পেস প্ল্যানিং, কালার স্কিন, ফার্নিচার ডিজাইন, ফেব্রিক্স, লাইটিং, ফ্লোরিং ইত্যাদি বিষয়ের ওপর।যোগ্যতাআমাদের দেশের ইন্টেরিয়র ডিজাইনের ওপর তিন ধরনের কোর্স চালু রয়েছে। এক বছর মেয়াদি ডিপ্লোমা, দুই বছরের ডিপ্লোমা এবং চার বছরের অনার্স। ইন্টেরিয়র ডিজাইনার হওয়ার প্রশিক্ষণ নিতে হলে প্রতিষ্ঠান ভেদে প্রয়োজনীয় যোগ্যতার কিছু তারতম্য থাকে। সাধারণত এইচএসসির পর চার বছরের অনার্স কোর্স এবং অনার্স পাস করে এক বছরের সার্টিফিকেট কোর্স করা যায়। কিছু প্রতিষ্ঠানে দুই বছর মেয়াদি ডিপ্লেমা কোর্স চালু আছে। এছাড়াও এসএসসি পাস ছাত্রদের জন্য কিছু কিছু প্রতিষ্ঠান চার বছরের ডিপ্লোমা কোর্সের আয়োজন করে থাকে। এসব কোর্সের জন্য সবচেয়ে বেশি দরকার হলো শেখার আগ্রহ। আবার প্রতিষ্ঠান ভেদে চাওয়া হয় ছবি আঁকার দক্ষতা কতটুকু আছে তা। যা শেখানো হয় বাংলাদেশ কারিগরি বোর্ডে। অনুমোদিত বাংলাদেশ ইন্টেরিয়র ডিজাইন ডেভেলপমেন্টের কর্নধার শেহেলি বানু লোহানী বলেন, ইন্টেরিয়র ডিজাইনের এ কোর্সগুলোর অধীনে সাধারণত যে বিষয়গুলো শেখানো হয় সেগুলো হলো আর্কিটেকচারাল ড্রয়িং, ফ্লোরিং ফার্নিচার ডিজাইন, গ্রাফিক্স ডিজাইন, ল্যান্ডস্কেপ ডিজাইন, অটোক্যাড, এয়ারকন্ডিশনিং, ফলস সিলিং, কলার কম্বিনেশন ইত্যাদি। মোট কথা ইন্টেরিয়র ডিজাইনে ঘর ও অফিসের অন্দরের সঙ্গে সম্পৃক্ত সব বিষয়েই শেখানো হয়। এছাড়া কোর্স শেষে ইন্টার্নশিপের ব্যবস্থা রয়েছে।খরচইন্টেরিয়র ডিজাইনে এক বছরের ডিপ্লোমা করতে প্রতিষ্ঠান ভেদে ৬০ থেকে ৭০ হাজার এবং দুই বছরের ডিপ্লোমা ১ লাখ থেকে ১ লাখ ২০ হাজার টাকা লাগে। এছাড়া চার বছরেরে অনার্স বা ডিপ্লোমা কোর্সে আড়াই লাখ থেকে ৩ লাখ টাকা খরচ হয়ে থাকে। তবে বর্তমানে কিছু কিছু প্রতিষ্ঠান কখনো কখনো তিন থেকে ছয় মাসের শর্ট কোর্সের অফারও করে থাকে। আর এ শর্ট কোর্সের খরচ নির্ভর করে কত শেখানো হচ্ছে তার ওপর।ক্যারিয়ার হিসেবেএকটি বেসরকারি প্রতিষ্ঠানের ডিজাইনার নিবিড় আকতার জানান, ইন্টেরিয়র ডিজাইন ক্যারিয়ার গড়তে খুব বেশি কষ্ট করতে হয় না। ইন্টেরিয়র ডিজাইনের উপর কোর্স করার পর তাকে বসে থাকতেও হয় না, কারণ সে ইচ্ছে করলে বিভিন্ন ফার্ম, রিয়েল এস্টেট কোম্পানি এবং ফার্নিচার কোম্পিানিতে চাকরি নিতে পারে। অথবা নিজেই গড়ে তুলতে পারে ইন্টেরিয়র ডিজাইনার হাউস। পৌঁছতে পারে তার কাক্সিক্ষত লক্ষ্যে। এছাড়া দেশেই কেবল নয়, বিদেশেও কাজ করার অনেক সুযোগ রয়েছে।আয়দেশে-বিদেশে এবং অনলাইনে কাজ করার সুযোগ আছে এ পেশায়। একজন ইন্টেরিয়র ডিজাইনার শুরুতেই ১২ থেকে ১৫ হাজার টাকা বেতনে ক্যারিয়ার শুরু করতে পারেন। যেহেতু এটি সৃষ্টিশীল পেশা সুতরাং কাজের দক্ষতার সঙ্গে সঙ্গে তার বেতন বৃদ্ধি পাবে কয়েকগুণ। আর নিজে ইন্টেরিয়র ডিজাইনের ফার্ম গড়ে তুলে অনেক টাকা আয় করা সম্ভব।যোগাযোগ : শান্ত মরিয়ম ইউনির্ভাসিটি, বাড়ি-১, রোড-১৪, সেকশন-১০, উত্তরা ঢাকা। আলিয়াঁস ফ্রঁসেজ, ২৬ মিরপুর রোড, ধানমন্ডি, ঢাকা। রেডিয়েন্ট ইনস্টিটিউট অব ডিজাইন, অর্কিড প্লাজা, বাড়ি ২, রোড-২৮, পুরাতন মিরপুর রোড, ধানমন্ডি, ঢাকা। এক্সটেরিয়র ইন্টেরিয়র (প্রা.) লি., বাড়ি-৯৯ (৩য় তলা), রোড-১১/এ, ধানমন্ডি, ঢাকা। বাংলাদেশ ইন্টেরিয়র ডিজাইন ডেভেলপমেন্ট, ১২৮ লেক সার্কস, কলাবাগান।ফ্যাশন ইনস্টিটিউট অব ডিজাইন, টাওয়ার হেমলেট (৬ষ্ঠ তলা), ১৬ কামাল আতাতুর্ক এভিনিউ, বনানী। স্কাই হাই ইনস্টিটিউট অব ডিজাইন, বাড়ি ২৭/১, রোড-১৩/১, ধানমন্ডি, ঢাকা। সূত্র : দৈনিক ইনকিলাব

নিউজটি শেয়ার করুন

© All rights reserved © 2017-2019 AmarSurma.Com
Design & Developed BY ThemesBazar.Com
error: