শুক্রবার, ০১ মার্চ ২০২৪, ১০:৫২ অপরাহ্ন

ব্রেকিং নিউজ :
প্রতিনিধি আবশ্যক, অনলাইন পত্রিকা আমার সুরমা ডটকমের জন্য প্রতিনিধি নিয়োগ দেয়া হবে। আগ্রহীরা যোগাযোগ করুন : ০১৭১৮-৬৮১২৮১, ০১৬২৫-৬২৭৬৪৩
যুক্তরাষ্ট্রে মসজিদ নির্মাণের অনুমতিতে গড়িমসি: ২৬ কোটি টাকা জরিমানা

যুক্তরাষ্ট্রে মসজিদ নির্মাণের অনুমতিতে গড়িমসি: ২৬ কোটি টাকা জরিমানা

আমার সুরমা ডটকম ডেক্সযুক্তরাষ্ট্রের নিউ জার্সির বার্নার্ডস টাউনশিপে একটি মসজিদ নির্মাণের অনুমতি দিতে গড়িমসি করায় নগর কর্তৃপক্ষকে প্রায় ২৬ কোটি টাকা জরিমানা করেছে দেশটির আদালত। জরিমানার এই অর্থের একটি অংশ মসজিদটির নির্মাণ কাজে এবং বাকি অংশ এ বিষয়ে হওয়া মামলার খরচ মেটাতে ব্যবহার করার নির্দেশ দেওয়া হয়েছে। গত মঙ্গলবার যুক্তরাষ্ট্রের ফেডারেল কোর্ট প্রস্তাবিত মসজিদটির নকশায় কিছুটা পরিবর্তন এনে তার নির্মাণকাজ শেষ করারও অনুমতি দিয়েছে। এ রায়কে তাদের জন্য ‘ঐতিহাসিক’ অভিহিত করেছেন যুক্তরাষ্ট্রের মুসলমানরা। রায়ে ক্ষতিপূরণ হিসেবে নগদ টাকা দেওয়ার পাশাপাশি শহরটির কর্তৃপক্ষকে ১৮০ দিনের মধ্যে তার নির্বাচিত ‘জোনিং বোর্ডের’ সব কর্মকর্তাকে ইসলাম ধর্মসহ সব ধর্মীয় সম্প্রদায়ের অনুভূতি সম্পর্কে প্রশিক্ষণ দেওয়ার নির্দেশ দেওয়া হয়েছে। এছাড়া ভবিষ্যতে অন্য কোনো ধর্মের লোকেরা যাতে এ ধরনের ‘বিমাতাসুলভ’ আচরণের শিকার না হন এবং সবাই যাতে নিজ নিজ ধর্মীয় আচার অবাধে পালন করতে পারেন সেজন্য শহরটির সব বাসিন্দাকে সচেতন করতেও বলেছে আদালত।

এর আগে ‘ইসলামিক সোসাইটি অব বাসকিন রীজ’ তাদের কেনা স্থানে একটি মসজিদ তৈরির জন্য ‘জোনিং বোর্ডে’ আবেদন করে। গত চার বছরে ৩৯ বার শুনানি শেষে ২০১৫ সালের ডিসেম্বরে ওই আবেদনটি নাকচ করে দেয় জোনিং বোর্ড। এরপর আবেদনকারীরা ফেডারেল কোর্টে একটি মামলা করেন। মামলাটির শুনানির সময় আদালত ক্ষুব্ধ প্রতিক্রিয়া জানিয়ে আবেদনকারীদের পক্ষ নিয়ে ‘জোনিং বোর্ডের’ সঙ্গে সমঝোতার উদ্যোগ নেয়। এ সমঝোতা অনুযায়ী, মসজিদটির পরিকল্পিত নকশায় কিছুটা পরিবর্তন আনা হয়েছে। আগের নকশায় মসজিদটির আশপাশে মোট ১০৭টি গাড়ি রাখার জায়গা থাকলেও এখন তা কমিয়ে ৫০ টি করা হয়েছে। এছাড়া ভবনে মুসল্লি ধারণক্ষমতাও কমিয়ে ১৫০ জনের ব্যবস্থা করতে বলা হয়েছে। অর্থাৎ মসজিদ ভবনটির আয়তন আগের চেয়ে ছোট করতে হবে।

বিচার বিভাগের এই সমঝোতাকে স্বাগত জানিয়েছেন প্রস্তাবিত মসজিদ কমিটির প্রেসিডেন্ট আলী চৌধুরী। এক বিবৃতিতে তিনি বলেন, “আমরা খুবই খুশি। আশা করছি খুব স্বল্প সময়ের মধ্যেই মসজিদ ভবনের নির্মাণ শুরু করতে পারব।” আলী চৌধুরী এর আগে এই শহরটির নির্বাচিত মেয়র ছিলেন। তিনি বলেন, “আমাদের এই মসজিদে এলাকার সব ধর্মপ্রাণ মানুষের উপাসনার ক্ষেত্র অবারিত থাকবে। ধর্মীয় সম্প্রীতির মধ্য দিয়ে আমরা এ সিটিতে নবজাগরণের ধারা বইয়ে দিতে চাই। “সকলকে আরও ভালোভাবে দেখিয়ে দিতে চাই যে, ইসলাম হচ্ছে শান্তি আর সম্প্রীতির ধর্ম।ইসলাম অন্য ধর্মের প্রতি বিদ্বেষ পোষণ করে না।”

ক্ষতিপূরণের টাকা: আদালতের রায় অনুযায়ী জরিমানার মোট ৩ দশমিক ২৫ মিলিয়ন ডলারের মধ্যে দেড় মিলিয়ন ডলার (১২ কোটি টাকা) ক্ষতিপূরণ বাবদ পাবে মসজিদ কমিটি। বাকি ১ দশমিক ৭৫ মিলিয়ন ডলার (১৪ কোটি টাকা) পাবে মামলাটি পরিচালনা করা আইনি প্রতিষ্ঠান ‘প্যাটারসন, ওয়েব এ্যান্ড টাইলার’। তবে আইনি প্রতিষ্ঠানটি ওই অর্থ এলাকার ধর্মপ্রাণ মানুষদের জন্য সেবামূলক প্রকল্পে খরচ করার ঘোষণা দিয়েছে। প্রতিষ্ঠানটির প্রধান আইনজীবী আদীল এ মাঙ্গি বলেন, সারা আমেরিকার নগর প্রশাসনের বোধোদয় ঘটা উচিত যে, যুক্তরাষ্ট্রের সংবিধানেই সব ধর্মীয় সম্প্রদায়ের উপাসনার অধিকার নিশ্চিত করা হয়েছে। “সে অনুযায়ী আমেরিকান মুসলমানদেরও অধিকার সুসংহত করা হয়েছে, যে কোন স্থানে মসজিদ স্থাপনের অনুমতি পেতে।”

এদিকে এই শহরটির কাছের বিয়োন টাউনশিপের মুসলিম সম্প্রদায়ও ‘জোনিং বোর্ডের বিমাতাসুলভ আচরণের’ প্রতিবাদে গত সপ্তাহে ফেডারেল কোর্টে একটি মামলা করেছে।এই সমঝোতার বিষয়টি তাদের মামলার ক্ষেত্রেও প্রভাব ফেলবে বলে ধারণা করা হচ্ছে।

নিউজটি শেয়ার করুন

© All rights reserved © 2017-2019 AmarSurma.Com
Design & Developed BY ThemesBazar.Com
error: