মঙ্গলবার, ২৯ নভেম্বর ২০২২, ০৯:০৯ পূর্বাহ্ন

ব্রেকিং নিউজ :
প্রতিনিধি আবশ্যক, অনলাইন পত্রিকা আমার সুরমা ডটকমের জন্য প্রতিনিধি নিয়োগ দেয়া হবে। আগ্রহীরা যোগাযোগ করুন : ০১৭১৮-৬৮১২৮১, ০১৬২৫-৬২৭৬৪৩
‘স্বাধীনতা সংগ্রামের চেতনার সঙ্গে বেইমানি করছে সরকার’

‘স্বাধীনতা সংগ্রামের চেতনার সঙ্গে বেইমানি করছে সরকার’

ja_106522আমার সুরমা ডটকম : বিএনপি চেয়ারপারসন বেগম খালেদা জিয়া বলেছেন, “যে স্বপ্ন নিয়ে জনগণ নব্বইয়ে স্বৈরশাসনের অবসান ঘটিয়েছিল,  সেই স্বপ্ন আজ কর্তৃত্ববাদী সরকার তছনছ করে দিয়েছে। মহান স্বাধীনতা সংগ্রামের চেতনার সঙ্গে বেইমানি করছে।”  স্বৈরাচার পতন দিবস উপলক্ষে শনিবার গণমাধ্যমে পাঠনো বাণীতে এ মন্তব্য করেন খালেদা জিয়া। তিনি বলেন, “গণতন্ত্র প্রতিষ্ঠার আন্দোলনে ৬ ডিসেম্বর আমাদের জাতীয় ইতিহাসে এক অবিস্মরণীয় দিন। ১৯৯০ সালের এ দিনে দীর্ঘ নয় বছরের সামরিক ও অগণতান্ত্রিক শাসনের বিরুদ্ধে এক সফল আন্দোলনের পর পতন ঘটেছিলো তৎকালীন সামরিক স্বৈরশাসক এরশাদের।” “স্বৈরশাসক এরশাদ ‘৮২’র ২৪ মার্চ পেশাগত সততা ও শপথ ভেঙে বন্দুকের নলের মুখে নির্বাচিত রাষ্ট্রপতি বিচারপতি সাত্তারকে ক্ষমতাচ্যুত করে সাংবিধানিক রাজনীতিকে কুঠারাঘাত করেছিল।” “স্বাধীনতার মহান ঘোষক শহীদ রাষ্ট্রপতি জিয়াউর রহমান যে বহুদলীয় রাজনীতির পুণঃপ্রবর্তন করেছিলেন, তার ধারাবাহিকতা ক্ষুন্ন করে ক্ষমতালিপ্সু স্বৈরাচারী এরশাদ গণতান্ত্রিক প্রতিষ্ঠান সমূহকে ধ্বংস করে রাষ্ট্রের গণতান্ত্রিক বিকাশকে রুদ্ধ করেছিল।” “কিন্তু ছাত্র-শ্রমিক-জনতার ঐক্যবদ্ধ সংগ্রামে স্বৈরাচারকে পরাজিত করার এ দিনে শৃঙ্খলিত গণতন্ত্র মুক্ত হয়েছিলো।” “আজকের এ দিনে আমি ‘৮২ থেকে’৯০ পর্যন্ত রক্তস্নাত স্বৈরাচার বিরোধী আন্দোলনে আত্মদানকারী বীর শহীদদের স্মৃতির প্রতি গভীর শ্রদ্ধা জ্ঞাপন করছি এবং তাঁদের রুহের মাগফিরাত কামনা করি। গণতন্ত্র পুনরুদ্ধারের এ অবিস্মরণীয় দিনে আমি শুভেচ্ছা ও অভিনন্দন জানাই স্বৈরাচারবিরোধী আন্দোলনে অংশগ্রহণকারী গণতন্ত্র ও মুক্তিকামী দেশবাসীকে।” “স্বাধীনতার চুয়াল্লিশ বছরে বাংলাদেশে গণতন্ত্র বার বার হোঁচট খেয়েছে এবং গণতন্ত্রের অভিযাত্রা ব্যাহত হয়েছে গণবিরোধী শাসনের মুখে।” “কিন্তু এদেশের গণতন্ত্রপ্রিয় মানুষ সকল বাধাকে অতিক্রম করে গণতন্ত্রের পথচলাকে নির্বিঘœও করেছে। অসংখ্য শহীদের রক্ত¯œাত অর্জিত গণতন্ত্র এখন আবারো সংকটের মুখে।” “বিনা ভোটের কর্তৃত্ববাদী সরকারের একদলীয় শাসনের চরিত্রগুলো ক্রমেই প্রকাশ্যেই স্পষ্ট হয়ে উঠছে বর্তমান শাসক গোষ্ঠীর ফ্যাসিবাদী আচরণে।” “৫ জানুয়ারি একতরফা নির্বাচন করে আবারও সারা জাতিকে একদলীয় নিষ্ঠুর শাসনের শৃঙ্খলে বন্দী করেছে। গণতন্ত্র হত্যাকারী পতিত স্বৈরাচার ও ৭২-৭৫ সময়ের সন্ত্রাসীরা একজোট হয়ে বাকশালী চেতনায় গণতান্ত্রিক প্রতিষ্ঠানসমূহকে ধ্বংসের খেলায় মেতেছে।”  “সব দলের মিলিত ইচ্ছায় যে নিরপেক্ষ, নির্দলীয় তত্ত্বাবধায়ক সরকার ব্যবস্থা প্রতিষ্ঠিত হয়েছিল তা এরা সংবিধান থেকে মুছে দিয়েছে।” “বিনা ভোটের সরকার সংবিধানে বর্ণিত জনগণের মৌলিক অধিকার সম্পূর্ণভাবে হরণ করেছে। দেশে আজ গণতন্ত্রের বিন্দুমাত্র চিহ্ন নেই, জান-মালের নিরাপত্তা নেই।” “তাই আজ ‘৯০’র চেতনায় গণতন্ত্র পুণঃপ্রতিষ্ঠার নতুন সংগ্রামে আমাদের ঐক্যবদ্ধ হতে হবে। আজকের এ দিনে আমি দেশবাসীকে সেই আহবান জানাই।”

নিউজটি শেয়ার করুন

© All rights reserved © 2017-2019 AmarSurma.Com
Design & Developed BY ThemesBazar.Com
error: