বৃহস্পতিবার, ১৮ এপ্রিল ২০২৪, ১২:১৬ পূর্বাহ্ন

ব্রেকিং নিউজ :
প্রতিনিধি আবশ্যক, অনলাইন পত্রিকা আমার সুরমা ডটকমের জন্য প্রতিনিধি নিয়োগ দেয়া হবে। আগ্রহীরা যোগাযোগ করুন : ০১৭১৮-৬৮১২৮১, ০১৬২৫-৬২৭৬৪৩
হিলারীর প্রতি সর্বোচ্চ সংখ্যক কংগ্রেস সদস্যের সমর্থন

হিলারীর প্রতি সর্বোচ্চ সংখ্যক কংগ্রেস সদস্যের সমর্থন

clip_image002_118158আমার সুরমা ডটকম : মার্কিন প্রেসিডেন্ট নির্বাচনে ডেমোক্র্যাট দলের মনোনয়ন প্রার্থী হিলারী ক্লিন্টনের প্রতি যুক্তরাষ্ট্র সিনেটের মাইনোরিটি দলের নেতা হেরি রেইড সমর্থন ঘোষণা করেছেন। এ নিয়ে ডেমোক্রেট দলের সর্বোচ্চ সংখ্যক কংগ্রেস সদস্যের সমর্থন পেলেন হিলারী ক্লিন্টন। তিনি পেয়েছেন ১৯৩ জন কংগ্রেস সদস্যের সমর্থন, অন্যদিকে ডেমোক্র্যাট দলের তার প্রতিদ্বন্দ্বী বার্নি স্যান্ডার্স পেয়েছেন মাত্র ৩ জনের সমর্থন। অন্য প্রার্থী ‘মার্টিন ও ম্যালি’ পেয়েছেন ১ জনের সমর্থন। যদিও তিনি ইতিমধ্যে প্রার্থীতা থেকে সরে দাঁড়িয়েছেন।
সিনেট মাইনোরিটি দলের নেতা হেরি রেইড বৃহস্প্রতিবার হিলারী ক্লিন্টনের প্রতি তার সমর্থন ব্যক্ত করে বলেন, মধ্যবিত্ত জনগণের কল্যাণে বার্নি স্যান্ডর্সের তূলনায় হিলারী ক্লিন্টন ভালো করবেন। তিনি ডেমোক্র্যাটদের প্রতি হিলারীর জন্য ঐক্যবদ্ধভাবে কাজ করার আহ্বান জানান। হিলারীর প্রশংসা করে হেরি রেইড বলেন, বিগত বছরগুলোতে তার সঙ্গে কাজ করার সময় আমি কিছু বিষয় লক্ষ্য করেছি। তিনিই প্রথম মহিলা, যিনি স্বাস্থ্যসেবা নিয়ে কিছু কাজ শুরু করেছেন। তিনি এ বিষয়ে ভালো বোঝেনও। পদে থাকাকালে স্বাস্থ্যসেবার বিষয়টিকে তিনি অগ্রাধিকার দিয়েছেন।
উল্লেখ্য, হেরি রেইড নেভাদা থেকে নির্বাচিত সিনেটর। গত ২০ ফেব্রুয়ারি নেভাদায় ডেমোক্র্যাট দলের মনোনয়নের ভোটাভুটি অনুষ্ঠিত হয়। কিন্তু, তখন পর্যন্ত হেরি রেইড কাউকে সমর্থন করেননি। এর আগে ২০০৮ সালে ওবামা এবং হিলারীর মধ্যে মনোনয়ন প্রতিদ্বন্দ্বিতার সময় হেরি রেইড ওবামাকে সমর্থন করেছিলেন।
ইতিমধ্যে তিনটি অঙ্গরাজ্যে ডেমোক্র্যাট দলের মনোনয়নের প্রাথমিক ভোটাভুটি হয়েছে। তারমধ্যে আইওয়া এবং নেভাদায় হিলারী জয়ী হয়েছেন। আইওয়া রাজ্যে ভোটের ব্যবধান ছিলো সামান্যই, ০.৩%। নেভাদায় ৫.৫%। অন্যদিকে নিউ হ্যাম্পশায়ারে বার্নি স্যান্ডার্স ২২.৪% ভোটের ব্যবধানে জয়ী হয়েছেন। আগামীকাল ২৭ ফেব্রুয়ারি সাউথ ক্যারোলিনায় ডেমোক্রেট দলের ভোটাভুটি হতে যাচ্ছে। এ পর্যন্ত যে ক’টি জনমত জরিপ হয়েছে তাতে দেখা যাচ্ছে, হিলারী এ রাজ্যে বরাবরই বড় ব্যবধানে এগিয়ে রয়েছেন। সর্বশেষ জরিপে স্যান্ডার্সের চেয়ে হিলারী শতকরা ২৮ % ব্যবধানে এগিয়ে রয়েছেন।
যুক্তরাষ্ট্রের অন্যান্য রাজ্যগুলোর অধিকাংশতেই হিলারী এগিয়ে রয়েছেন বলে জনমত জরিপগুলোতে পরিষ্কার ধারণা পাওয়া যাচ্ছে। সর্বশেষ জরিপে হিলারী যেসব রাজ্যে এগিয়ে রয়েছেন তারমধ্যে- মিনেসোটায় ৩৪% ব্যবধানে, জর্জিয়ায় ৩৮% ব্যবধানে, টেক্সাসে ৩২% ব্যবধানে, ভার্জিনিয়ায় ২৭% ব্যবধানে, মিশিগানে ৩৪% ব্যবধানে, ফ্লোরিডায় ৩৬% ব্যবধানে, অহিও ১৫% ব্যবধানে, পেনসিলভানিয়ায় ২২% ব্যবধানে, নিউজার্সি ২৩% ব্যবধানে, নর্থ ক্যারোলিনায় ১৫% ব্যবধানে, মেরিল্যান্ডে ৩০% ব্যবধানে, ইলিনয়েজ ১৯% ব্যবধানে, উটাহ-এ ৭% ব্যবধানে, আলাবামা ২৮% ব্যবধানে, আরকানসাস ২৫% ব্যবধানে, টেনেসি-তে ২৬% ব্যবধানে, লুসিয়ানায় ৩১% ব্যবধানে, মিসিসিপি-তে ৩৪% ব্যবধানে, ওকলাহোমায় ২% ব্যবধানে, নিউইয়র্কে ২১% ব্যবধানে এগিয়ে রয়েছেন হিলারী ক্লিন্টন।
অন্যদিকে বার্নি স্যান্ডার্স মাত্র ৪টি রাজ্যে এগিয়ে রয়েছেন। এরমধ্যে দু’টি রাজ্যে অবস্থান বলা যায় প্রায় সমানে সমানে- ম্যাসাচুসেটস এবং উইসকনসিন। বাকি দু’টি রাজ্যে তিনি পরিষ্কার ব্যবধানে এগিয়ে আছেন- ভারমন্ট এবং ওয়েস্ট ভার্জিনিয়া। ম্যাসাচুসেটসের ব্যাপারে ইতিপূর্বে এক জরিপে স্যান্ডার্সকে ৭% ব্যবধানে এগিয়ে দেখানো হয়েছিলো। কিন্তু, সর্বশেষ জরিপে উভয়ের মধ্যে ‘টাই’ অর্থাৎ সমান পয়েন্ট পেয়েছেন বলে উল্লেখ করা হয়েছে। উইসকনসিনে মাত্র ১ পয়েন্ট ব্যবধানে স্যান্ডার্স এগিয়ে রয়েছেন বলে জরিপে দেখানো হয়। স্যান্ডার্স তার নিজ রাজ্য ভারমন্টে উল্লেখযোগ্য ব্যবধানে এগিয়ে রয়েছেন। এখানে ব্যবধান ৭৪%। এছাড়া ওয়েস্ট ভার্জিনিয়ায় তিনি ২৮% ব্যবধানে এগিয়ে রয়েছেন। এর আগে গত ৯ ফেব্রুয়ারি স্যান্ডার্স যে অঙ্গরাজ্যটিতে জয়ী হয়েছেন ভারমন্টেরই প্রতিবেশী সেই নিউ হ্যাম্পশায়ার। ওয়েস্ট ভার্জিনিয়ায় সাদা মানুষের হার ৯৩.৯%, ভারমন্টে ৯৬% এবং নিউ হ্যাম্পশায়ারে ৯৩.৯%। নির্বাচন প্রসঙ্গে ওয়াশিংটনসহ কয়েকটি রাজ্যে সাম্প্রতিক সময়ে কোনো জরিপ হয়নি। কারণ, এ রাজ্যগুলোতে মনোনয়নের ভোটাভুটি হবে শেষের দিকে।

নিউজটি শেয়ার করুন

© All rights reserved © 2017-2019 AmarSurma.Com
Design & Developed BY ThemesBazar.Com
error: