বুধবার, ০৮ ফেব্রুয়ারী ২০২৩, ১১:২৪ অপরাহ্ন

ব্রেকিং নিউজ :
প্রতিনিধি আবশ্যক, অনলাইন পত্রিকা আমার সুরমা ডটকমের জন্য প্রতিনিধি নিয়োগ দেয়া হবে। আগ্রহীরা যোগাযোগ করুন : ০১৭১৮-৬৮১২৮১, ০১৬২৫-৬২৭৬৪৩
সংবাদ শিরোনাম :
এইচএসসির ফল প্রকাশ, পাসের হার ৮৫.৯৫ শতাংশ নিহতের সংখ্যা ৫০০০ ছাড়ালো, তিন মাসের জরুরি অবস্থা জারি তুরস্কে রাজাকার ও বিএনপির লোকদের নিয়ে সুরঞ্জিত সেনগুপ্তের শোকর‌্যালি পাকিস্তানের সাবেক সামরিক শাসক পারভেজ মোশাররফের মৃত্যু চট্টগ্রাম কলেজের ১৭৫ শিক্ষার্থী ৩ ঘন্টার অভিযানে ডুবোচর থেকে উদ্ধার ফরিদপুরে একই পরিবারে ৫ সদস্যের ইসলাম ধর্ম গ্রহণ কে হচ্ছেন রাষ্ট্রপতি জানা যাবে মঙ্গলবার বিশ্ব হাত গুটিয়ে বসে থাকলে আরেকটি রোহিঙ্গা গণহত্যা হবে: জাতিসঙ্ঘ ১০ দফা আদায়ে ব্যর্থ হলে বাংলাদেশ ব্যর্থ রাষ্ট্রে পরিণত হবে: মির্জা ফখরুল বহিষ্কৃত নেতার সমাবেশে জেলা সভাপতি: উজ্জীবিত নেতাকর্মীরা
১ এপ্রিল মুসলমানদের জন্য মর্মান্তিক দিবস: নেজামে ইসলাম

১ এপ্রিল মুসলমানদের জন্য মর্মান্তিক দিবস: নেজামে ইসলাম

fileneআমার সুরমা ডটকম বাংলাদেশ নেজামে ইসলাম পার্টির সভাপতি মাওলানা আবদুল হালিম ও মহাসচিব  মাওলানা মোঃ আবদুল লতিফ নেজামী ১ এপ্রিলকে  বিশ্বের মুসমানদের জন্য এক মর্মান্তিক দিবস হিসেবে আখ্যায়িত করে বলেছেন যে, ১৪৯২ সালের ১ এপ্রিল স্পেনে ৭ লাখ মুসলিম শিশু ও নরনারীকে হত্যার মধ্যদিয়ে এই দিবসের সূচনা হয়। মুসলিমদের সঙ্গে প্রতারণার স্মৃতি হিসেবে পাশ্চাত্যে আনন্দ দিবস হিসেবে ”এপ্রিল ফুল” পালিত হয়ে আসছে। নেজামে ইসলাম নেতৃবৃন্দ গ্রানাডা ট্রাজেডিকে মুসলিমদের মধ্যে বিশ্বাসঘাতকতা, আত্মঘাতী ভ্রাতৃযুদ্ধ ও বিজাতীয়দের সঙ্গে বন্ধুত্বের করুণ পরিণতি হিসেবে উল্লেখ করে বলেন, মুসলিম সভ্যতার জ্ঞান বিজ্ঞানের কেন্দ্রস্থল গ্রানাডার শেষ রাজা আবুল হাসানের  পুত্র আবু আবদুল্লাহ মুহাম্মদ বুয়াবদিল ফার্ডিন্যান্ডের প্রতারণায় তারই সঙ্গে যোগ দিয়ে পিতার বিরুদ্ধে যুদ্ধ ঘোষণা করে এবং ১৪৯২সালের ৩ জানুয়ারি  গ্রানাডা দখল করে তা ফার্ডিন্যান্ডের হাতে তুলে দেয়। এ কাজে তাকে সাহায্য করেছিল তার মা আয়েশা। স্ত্রী ও সন্তানের বিশ্বাসঘাতকতায় পরাজিত গ্রানাডারাজ আবুল হাসান ভ্রাতা আল-জাগালের পক্ষে সিংহাসন ও রাজ্য ত্যাগ করেও শেষ রক্ষা হয়নি। গ্রানাডা পতনের পর বিশ্বাসঘাতক বুয়াবদিলের মীরজাফরের ন্যায় রাজা হওয়ার ভাগ্য হয়নি। বৃত্তিভোগী হিসেবে সে বিতাড়িত হয়। কিন্তু খ্রীস্টানদের বিরুদ্ধে এলাকা ভিত্তিক বিচ্ছিন্ন ও বিক্ষিপ্ত যুদ্ধ চলতে থাকে। নেতৃবৃন্দ আরো বলেন, ১৪৬৯ সালে এরাগন রাজ ফার্ডিন্যান্ড এবং ক্যাষ্টাইলের রাণী ইসাবিলার পরিণয়ের পর স্পেনে খ্রীষ্টানরা শক্তিশালী হতে থাকে। কর্ডোভা, সেভিল. ভেলেন্সিয়া ইত্যাদি পতনের পর সম্মিলিত খ্রীস্টান শক্তি বিজয়ী ফার্ডিন্যান্ড ঘোষণা করেন, দেশের মুসলিমরা অস্ত্র ত্যাগ করে ১ এপ্রিল (১৪৯২) মসজিদে আশ্রয় নিলে ক্ষমা পাবে। মসজিদে মসজিদে আশ্রয় গ্রহণকারী নিরস্ত্র মুসলিম নরনারীর ওপর পরিকল্পিত হামলা ও মসজিদগুলোতে অগ্নিসংযোগ করা হয়। আক্রমনে লাখ লাখ  মুসলিম  নরনারী ও শিশু হত্যা করা হয়। এ হত্যাকান্ড যদিও গ্রানাডার বড় মসজিদে কামান দাগিয়ে, অগ্নিসংযোগে করা হয়েছিল। একই কায়দায় ভিন্ন ভিন্ন সময়ে স্পেনের অন্যান্য শহরে ও জনপদে সংঘটিত হয়।  মুসলিমদের সঙ্গে এ প্রতারণার স্মৃতি হিসেবে পাশ্চাত্যে আনন্দ দিবস হিসেবে ”এপ্রিল ফুল” দিবস পলিত হচ্ছে। বিজ্ঞপ্তি

নিউজটি শেয়ার করুন

© All rights reserved © 2017-2019 AmarSurma.Com
Design & Developed BY ThemesBazar.Com
error: