বৃহস্পতিবার, ৩০ মে ২০২৪, ০৮:৪৯ পূর্বাহ্ন

ব্রেকিং নিউজ :
প্রতিনিধি আবশ্যক: অনলাইন পত্রিকা আমার সুরমা ডটকমের জন্য প্রতিনিধি নিয়োগ দেয়া হবে। আগ্রহীরা যোগাযোগ করুন : ০১৭১৮-৬৮১২৮১, ০১৭৯৮-৬৭৬৩০১
ডাইনি সন্দেহে আসামে শিরশ্ছেদ করে বৃদ্ধা হত্যা: আটক ১৬

ডাইনি সন্দেহে আসামে শিরশ্ছেদ করে বৃদ্ধা হত্যা: আটক ১৬

আমার সুরমা ডটকম ডেস্ক:

ভারতের আসাম রাজ্যে ডাকিনীবিদ্যা চর্চার অভিযোগে এক বৃদ্ধাকে নগ্ন ও শিরশ্ছেদ করে হত্যার ঘটনায় পুলিশ ১৬ জনকে গ্রেফতারের দাবি করেছে। আজ বুধবার বিবিসি অনলাইনের খবরে এ কথা জানানো হয়। রাজ্যের শনিতপুর জেলার একটি আদিবাসী বসতিতে অসুখ ছড়িয়ে পড়ার ঘটনায় পূর্ণি ওরাং নামে ৬৩ বছর বয়সী এক বৃদ্ধার বিরুদ্ধে ডাকিনীবিদ্যা চর্চার অভিযোগ তোলেন গ্রামবাসী। পরে ডাইনি সন্দেহে নগ্ন করে এবং শিরশ্ছেদ করে তাঁকে হত্যা করা হয়। পুলিশ জানিয়েছে, গ্রেফতার ১৬ জনের মধ্যে নয়জন নারী। গ্রেফতারকৃতদের মুক্তির দাবিতে স্থানীয় পুলিশ স্টেশনের সামনে বিক্ষোভ করেছে একদল গ্রামবাসী। কিরান তেরনপি নামের এক গ্রামবাসীর ভাষ্য, ‘পূর্ণি ওরাং ডাইনি ছিলেন। তিনি তাঁর শত্রুদের ওপর ডাকিনীবিদ্যার চর্চা করতেন। এ ধরনের ডাইনিদের জন্য কোনো মায়া নেই। তাকে হত্যা করাটা যথার্থ হয়েছে।’ আসামের পুলিশ জানিয়েছে, গত ছয় বছরে ডাকিনীবিদ্যা চর্চার অভিযোগ তুলে শিরশ্ছেদ করে, জীবন্ত পুড়িয়ে অথবা ছুরিকাঘাত করে এখানকার অন্তত ৯০ জনকে হত্যা করা হয়েছে। এঁদের বেশির ভাগই নারী। গত বছরের অক্টোবরে আসামে ভারতীয় ক্রীড়াবিদ দেবযানী বোড়াকেও ডাইনি আখ্যায়িত করে বেদম মারধর করা হয়। বিশেষজ্ঞরা বলছেন, এসব হামলার পেছনে কুসংস্কার ও অন্ধবিশ্বাস কাজ করে। তবে কখনো কখনো সম্পত্তির জন্য ইচ্ছাকৃতভাবে ডাকিনীবিদ্যা চর্চার অভিযোগ এনে বিধবাদের হত্যা করার মতো ঘটনাও ঘটে।

নিউজটি শেয়ার করুন

© All rights reserved © 2017-2019 AmarSurma.Com
Design & Developed BY ThemesBazar.Com