মঙ্গলবার, ১৮ Jun ২০২৪, ০৩:১৬ পূর্বাহ্ন

ব্রেকিং নিউজ :
প্রতিনিধি আবশ্যক: অনলাইন পত্রিকা আমার সুরমা ডটকমের জন্য প্রতিনিধি নিয়োগ দেয়া হবে। আগ্রহীরা যোগাযোগ করুন : ০১৭১৮-৬৮১২৮১, ০১৭৯৮-৬৭৬৩০১
আশ্বাস দিয়ে এলাকা ছেড়েছেন আনিসুল

আশ্বাস দিয়ে এলাকা ছেড়েছেন আনিসুল

index_105599আমার সুরমা ডটকম : রাজধানীর তেজগাঁওতে ট্রাকস্ট্যান্ড উচ্ছেদ অভিযানে পুলিশের সঙ্গে শ্রমিকদের সংঘর্ষের ঘটনায় প্রায় তিন ঘণ্টা শ্রমিক সংগঠনের কার্যালয়ে অবরুদ্ধ থাকার পর শ্রমিকদের সহযোগিতার আশ্বাস দিয়ে এলাকা ছেড়েছেন ঢাকা সিটি করপোরেশন উত্তরের মেয়র আনিসুল হক। বিকাল সাড়ে চারটার পর উপস্থিত শ্রমিকদের উদ্দেশে মেয়র বলেন, ওই এলাকায় রাস্তায় ট্রাক পার্কিং বন্ধ করে ভেতরে নির্ধারিত ট্রাক স্ট্যান্ডে পার্কিং এর ব্যবস্থা করা হচ্ছে। এটি সিটি করপোরেশনের নাগরিকদের স্বার্থে করা হচ্ছে। এখানে মেয়রের কোন স্বার্থ নেই। তিনি বলেন, নাগরিকদের ভোটেই আমি মেয়র হয়েছি। আমি প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা ও আওয়ামী লীগের সমর্থন নিয়ে মেয়র হয়েছি। ভয় পাওয়ার কিছু নেই। শ্রমিকদের উদ্দেশে তিনি বলেন, আপনারা আমাকে সহযোগিতা করুন, আমিও আপনাদের সহযোগিতা করব।
রোববার দুপুর একটার দিকে ট্রাক স্ট্যান্ড এলাকায় অভিযান শুরু হয়। এ সময় মারমুখী হয়ে ওঠেন ট্রাকচালকসহ সংশ্লিষ্ট শ্রমিকরা। বিষয়টি নিয়ে কথা বলার জন্য মেয়র আনিসুল হক বাংলাদেশ ট্রাক ও কাভার্ড ভ্যান ড্রাইভার্স ইউনিয়নের কার্যালয়ে যান। এ সময় বাইরে থেকে ক্ষুব্ধ শ্রমিকরা ওই কার্যালয় অবরুদ্ধ করে রাখেন। সেখানে মেয়র সাংবাদিকদের বলেন, যারা মাস্তানি  করছেন, তাদের বলছি এসব মাস্তানি চলবে না। আমার পেছনে মাননীয় প্রধানমন্ত্রী ও মানুষের সমর্থন আছে। ঢাকা শহরে এসব অবৈধ কাজ হবে না। আনিসুল হক বলেন, শহরের মানুষ যাতে নির্বিঘ্নে চলতে পারে সেই কাজ করছি। ভয় পাওয়ার কিছু নেই। কেউ উত্তেজিত করলেন, আর আমি আমার লোক নিয়ে দৌঁড়ে চলে গেলাম এটা হবে না।
প্রত্যক্ষদর্শীরা জানান, দুপুরে সিটি করপোরেশনের লোকজন ট্রাকস্ট্যান্ড উচ্ছেদের অভিযান শুরু করেন। এ সময় সেখানে ছিলেন রেলমন্ত্রী মুজিবুল হক ও ঢাকা উত্তরের মেয়র আনিসুল হক। উচ্ছেদ অভিযান শুরুর কিছুক্ষণ পরই চালক ও স্থানীয় লোকজন উচ্ছেদকারীদের ওপর ইট পাটকেল ছুঁড়তে শুরু করেন। পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণ করতে ও মন্ত্রী-মেয়রকে রক্ষা করতে আইনশৃঙ্খলা রক্ষাকারী বাহিনী তৎপরতা শুরু করে। এতে এক ট্রাকচালক আহত হন। আহত ট্রাক চালকের নাম জসিমউদ্দিন। তাকে দ্রুত ঢাকা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে নেয়া হয়েছে। এ ছাড়া পাল্টাপাল্টি ধাওয়ায় ভাঙচুরের শিকার হয়েছে চ্যানেল আইয়ের একটি গাড়ি। ওই গাড়ির চালক আজহারও আহত হয়েছেন। এ ছাড়া একজন সাংবাদিকের মাথায় ইটের আঘাত লেগেছে। তার ক্যামেরা ভাঙচুর করা হয়েছে। সন্ধ্যায় মেয়র এলাকা ত্যাগের পর শ্রমিকরা ধীরে ধীরে এলাকা ছাড়ছেন। পুলিশ জানিয়েছে এলাকায় অতিরিক্ত পুলিশ মোতায়েন রয়েছে।

নিউজটি শেয়ার করুন

© All rights reserved © 2017-2019 AmarSurma.Com
Design & Developed BY ThemesBazar.Com