বৃহস্পতিবার, ০৯ ফেব্রুয়ারী ২০২৩, ১২:০৬ পূর্বাহ্ন

ব্রেকিং নিউজ :
প্রতিনিধি আবশ্যক, অনলাইন পত্রিকা আমার সুরমা ডটকমের জন্য প্রতিনিধি নিয়োগ দেয়া হবে। আগ্রহীরা যোগাযোগ করুন : ০১৭১৮-৬৮১২৮১, ০১৬২৫-৬২৭৬৪৩
সংবাদ শিরোনাম :
এইচএসসির ফল প্রকাশ, পাসের হার ৮৫.৯৫ শতাংশ নিহতের সংখ্যা ৫০০০ ছাড়ালো, তিন মাসের জরুরি অবস্থা জারি তুরস্কে রাজাকার ও বিএনপির লোকদের নিয়ে সুরঞ্জিত সেনগুপ্তের শোকর‌্যালি পাকিস্তানের সাবেক সামরিক শাসক পারভেজ মোশাররফের মৃত্যু চট্টগ্রাম কলেজের ১৭৫ শিক্ষার্থী ৩ ঘন্টার অভিযানে ডুবোচর থেকে উদ্ধার ফরিদপুরে একই পরিবারে ৫ সদস্যের ইসলাম ধর্ম গ্রহণ কে হচ্ছেন রাষ্ট্রপতি জানা যাবে মঙ্গলবার বিশ্ব হাত গুটিয়ে বসে থাকলে আরেকটি রোহিঙ্গা গণহত্যা হবে: জাতিসঙ্ঘ ১০ দফা আদায়ে ব্যর্থ হলে বাংলাদেশ ব্যর্থ রাষ্ট্রে পরিণত হবে: মির্জা ফখরুল বহিষ্কৃত নেতার সমাবেশে জেলা সভাপতি: উজ্জীবিত নেতাকর্মীরা
ইস্ট লন্ডন মসজিদ সংলগ্ন সিনাগগ ভবনটি এখন মসজিদেরই সম্পদ ১১ লাখ পাউন্ড ক্বরজে হাসানা পরিশোধে সহযোগিতা কামনা

ইস্ট লন্ডন মসজিদ সংলগ্ন সিনাগগ ভবনটি এখন মসজিদেরই সম্পদ ১১ লাখ পাউন্ড ক্বরজে হাসানা পরিশোধে সহযোগিতা কামনা

আমার সুরমা ডটকম ডেক্স :

ইস্ট লন্ডন মসজিদ ও লন্ডন মুসলিম সেন্টারের মধ্যবর্তী স্থানে অবস্থিত সিনাগগ ভবনটি এখন মসজিদেরই সম্পদ। এতোদিন এখানে ইয়াহুদী ধর্মাবলম্বীরা উপাসনা করলেও এখন থেকে এখানে ধর্মীয় কর্মকান্ড পরিচালনা করবেন মুসলমানেরা। গত ১৫ জুলাই সিনাগগ ভবনটি ১৫ লক্ষ পাউন্ডে ক্রয় করে ইস্ট লন্ডন মসজিদ। সিনাগগ কর্তৃপক্ষের কাছ থেকে তা বিক্রয়ের প্রস্তাব আসার মাত্র একমাসের মধ্যে কমিউনিটির মানুষের সার্বিক সহযোগিতায় এটি ক্রয় করা সম্ভব হয়েছে। এ জন্য মসজিদ কমিটির নেতৃবৃন্দ কমিউনিটির সর্বস্তরের মানুষের প্রতি গভীর কৃতজ্ঞতা প্রকাশ করেছেন। ২১ জুলাই মঙ্গলবার বিকেলে সিনাগগ ভবন সম্পর্কে আপডেট দিতে ইস্ট লন্ডন মসজিদ আয়োজন করে এক প্রেস ব্রিফিং।

এ সময় দ্বিতল বিশিষ্ট সিনাগগ ভবনটি সাংবাদিকদের ঘুরে দেখানো হয়। প্রেস ব্রিফিংয়ে প্রজেক্টারের মাধ্যমে ইস্ট লন্ডন মসজিদের সংক্ষিপ্ত ইতিহাস তুলে ধরে মসজিদের বহুমুখী সেবা কার্যক্রমের বর্ণণা দেয়া হয়। এতে লিখিত বক্তব্য পাঠ করেন ইস্ট লন্ডন মসজিদ ও লন্ডন মুসলিম সেন্টারের সেক্রেটারি আইয়ূব খান। বিভিন্ন প্রশ্নের জবাব দেন মসজিদের চেয়ারম্যান মুহাম্মদ হাবিবুর রহমান ও নির্বাহী পরিচালক দেলওয়ার খান। প্রেস ব্রিফিংয়ের পূর্বে সিনাগগের ভেতরে আজান দেন মসজিদের মুয়াজ্জিন হাফিজ সাঈদ মোহাম্মদ। এতে লিখিত বক্তব্যে বলা হয়, রামাদ্বানে লাইভ টিভি ফান্ডরেইজিং, মসজিদের দৈনন্দিন আয় এবং শবে ক্বদরের বিশেষ কালেকশনের মাধ্যমে প্রায় ১৫ লাখ পাউন্ড সংগৃহিত হয়।
এর মধ্যে ১১ লাখ পাউন্ড ক্বরজে হাসানা (সুদমুক্ত লোন) আর বাকী ৪ লাখ পাউন্ড হচ্ছে ডনেশন। এই ১৫ লাখ পাউন্ড দিয়েই সিনাগগ ভবনটির ক্রয় প্রক্রিয়া সম্পন্ন করা হয়। এখন পর্যায়ক্রমে ক্বরজে হাসানার ১১ লাখ পাউন্ড মানুষকে ফিরিয়ে দিতে হবে। আর এ জন্য বিভিন্ন ফান্ডরেইজিং কর্মসূচি অব্যাহত থাকবে। উল্লেখযোগ্য ফান্ডরেইজিং ক্যাম্পেইনের মধ্যে আগামী ৯ আগষ্ট রোববার পূর্ব লন্ডনের ভিক্টোরিয়া পার্কে আয়োজন করা হয়েছে মুসলিম চ্যারিটি রান ক্যাম্পেইন। বিগত তিন বছরের সফল ফান্ডরেইজিং ক্যাম্পেইন ‘রান ফর ইউর মস্ক’ই এ বছর ‘মুসলিম চ্যারিটি রান’ হিশেবে পরিচালিত হবে। যে ক্যাম্পেইনে মসজিদের জন্য ফান্ডরেইজিং ছাড়াও বিভিন্ন রেজিস্টার্ড চ্যারিটি তাদের সংগঠনের জন্য ফান্ডরেইজিংয়ের সুযোগ পাবে। ক্যাম্পেইনের রেজিষ্ট্রেশন কার্যক্রম চলছে। আগ্রহীদেরকে মসজিদের রিসেপশন থেকে ফরম সংগ্রহ করে অথবা ওয়েবসাইট ভিজিট করে নাম রেজিষ্ট্রি করতে অনুরোধ জানানো হয়েছে। উক্ত ক্যাম্পেইনে অংশগ্রহণের মাধ্যমে মসজিদের সাহায্যে এগিয়ে আসতে কমিউনিটির সর্বস্তরের মানুষের প্রতি আহবান জানিয়েছেন মসজিদ নেতৃবৃন্দ।  প্রেস ব্রিফিংয়ে মসজিদের সংক্ষিপ্ত ইতিহাস তুলে ধরে বলা হয়, আজকের যে জায়গায় ইস্ট লন্ডন মসজিদ কমপ্লেক্স সেখানে একসময় শুধু এই সিনাগগ ভবনটিই দন্ডায়মান ছিলো। সিনাগগের আশপাশ ছিলো দ্বিতীয় বিশ্বযুদ্ধের বোমা আক্রান্ত অব্যবহৃত জায়গা। ১৯৭৫ সালে কমার্শিয়াল রোড থেকে মসজিদটি এখানে স্থানান্তরিত হয়। প্রথমে অস্থায়ী ঘরে মসজিদের কার্যক্রম চলে। পরবর্তীতে প্রতিষ্ঠা হয় আজকের ইস্ট লন্ডন মসজিদের মূল হল। এরপর পর্যায়ক্রমে প্রতিষ্ঠা লাভ করে লন্ডন মুসলিম সেন্টার ও মারিয়াম সেন্টার। আর এবার সর্বশেষ সংযোজন হলো সিনাগগ ভবন। তখনকার দিনে মসজিদ কমিটি যা ভাবতে পারেনি আজ শুধু তা বাস্তবায়নই হচ্ছে না বরং ভবিষ্যতের জন্য তাঁরা আরো নতুন কিছু করার স্বপ্ন দেখছেন। সিনাগগ ভবন থেকে কমিউনিটির মানুষ কীভাবে উপকৃত হবেন- সাংবাদিকদের এমন প্রশ্নের জবাবে মসজিদ নেতৃবৃন্দ বলেছেন, প্রস্তাব আসার সাথে সাথেই এক মাসের মাথায় এটি ক্রয় করতে হয়েছে। এখন বোর্ড অব ম্যানেজমেন্ট কিভাবে এখানে মানুষের সুযোগ-সুবিধা নিশ্চিত করতে পারে সে লক্ষ্যে কাজ শুরু করেছে। তবে এই ভবনের নিচতলা কমিউনিটির বহুমুখী সুযোগ-সুবিধার জন্য ব্যবহৃত হবে। তাছাড়া উপরতলায় মসজিদের দীর্ঘমেয়াদী আয়ের জন্য বিভিন্ন পদক্ষেপ গ্রহণ করা হবে। যা মসজিদকে মোটা অংকের ঋণ থেকে মুক্ত করতে সহযোগিতা করবে বলে।  রামাদ্বানে মসজিদের বিভিন্ন কার্যক্রম সম্পর্কে বর্ণণা দিয়ে গিয়ে আইয়ূব খান বলেন, এ মাসে ইস্ট লন্ডন মসজিদ সবচেয়ে ব্যস্ত সময় পার করে। প্রতি বছরের ন্যায় এবারও রামাদ্বানে প্রায় ৩০০ হাজার মানুষ ইস্ট লন্ডন মসজিদ ভিজিট করেছেন। তারা বিভিন্নভাবে মসজিদের সেবা গ্রহণ করেছেন। রামাদ্বানে ৫ জন হাফিজ নিয়মিত তারাবিহ নামাজ পড়িয়েছেন। সারা মাসে প্রায় ২০ হাজার মানুষ ইফতার করেছেন। শতাধিক মানুষ এতেক্বাফ করেছেন। প্রতিদিন জোহর ও আসরের নামাজের পর রামাদ্বান বিষয়ক নিয়মিত আলোচনা হয়েছে। বলতে গেলে চবিবশ ঘন্টাই মসজিদে ছিলো ধর্মপ্রাণ মানুষের পদচারণা। তিনি বলেন, আমরা প্রতিনিয়তই মসজিদের সেবা কার্যক্রমকে আরো উন্নত পর্যায়ে নিয়ে যাওয়ার চেষ্টা করি। এক বছরের চেয়ে অন্য বছর কীভাবে আরো ভালো করা যায়- এটাই আমাদের প্রধান লক্ষ্য। কমিউনিটির মানুষের সহযোগিতা অব্যাহত থাকলে এই মসজিদ আরো অনেকদূর এগিয়ে যাবে বলে আমরা আশাবাদী।

নিউজটি শেয়ার করুন

© All rights reserved © 2017-2019 AmarSurma.Com
Design & Developed BY ThemesBazar.Com
error: