বুধবার, ০৮ ফেব্রুয়ারী ২০২৩, ১০:৫৮ অপরাহ্ন

ব্রেকিং নিউজ :
প্রতিনিধি আবশ্যক, অনলাইন পত্রিকা আমার সুরমা ডটকমের জন্য প্রতিনিধি নিয়োগ দেয়া হবে। আগ্রহীরা যোগাযোগ করুন : ০১৭১৮-৬৮১২৮১, ০১৬২৫-৬২৭৬৪৩
সংবাদ শিরোনাম :
এইচএসসির ফল প্রকাশ, পাসের হার ৮৫.৯৫ শতাংশ নিহতের সংখ্যা ৫০০০ ছাড়ালো, তিন মাসের জরুরি অবস্থা জারি তুরস্কে রাজাকার ও বিএনপির লোকদের নিয়ে সুরঞ্জিত সেনগুপ্তের শোকর‌্যালি পাকিস্তানের সাবেক সামরিক শাসক পারভেজ মোশাররফের মৃত্যু চট্টগ্রাম কলেজের ১৭৫ শিক্ষার্থী ৩ ঘন্টার অভিযানে ডুবোচর থেকে উদ্ধার ফরিদপুরে একই পরিবারে ৫ সদস্যের ইসলাম ধর্ম গ্রহণ কে হচ্ছেন রাষ্ট্রপতি জানা যাবে মঙ্গলবার বিশ্ব হাত গুটিয়ে বসে থাকলে আরেকটি রোহিঙ্গা গণহত্যা হবে: জাতিসঙ্ঘ ১০ দফা আদায়ে ব্যর্থ হলে বাংলাদেশ ব্যর্থ রাষ্ট্রে পরিণত হবে: মির্জা ফখরুল বহিষ্কৃত নেতার সমাবেশে জেলা সভাপতি: উজ্জীবিত নেতাকর্মীরা
দিরাইয়ে মা ও ছেলেকে কুপিয়ে হত্যা : পাষণ্ড ঘাতক আটক

দিরাইয়ে মা ও ছেলেকে কুপিয়ে হত্যা : পাষণ্ড ঘাতক আটক

kupea_hatta_305068881মুহাম্মদ আব্দুল বাছির সরদার : দিরাইয়ে পারিবারিক কলহের জের ধরে নিজের মা ও আড়াই মাসের শিশু সন্তানকে কুপিয়ে হত্যা করেছে একরাম আলী (৩৮) নামের এক পাষণ্ড। ঘটনার পর নরপশু ঘাতক একরাম মিয়াকে আটক করা হয়েছে। নিহতরা হলেন মৃত অসমত আলীর স্ত্রী ও ঘাতক একরামের মা আামেনা বেগম (৫৫) ও তার আড়াই মাসের ছেলে অনিক। ঘটনাটি ঘটেছে সুনামগঞ্জের দিরাই উপজেলার সরমঙ্গল ইউনিয়নের ধনপুর (খারারপাড়) গ্রামে। দিরাই থানা পুলিশ সূত্রে জানা যায়, বৃহস্পতিবার সন্ধ্যা ৭টার দিকে ইউনিয়নের ধনপুর (খারারপাড়) গ্রামের মৃত অসমত আলীর ছেলে একরাম পারিবারিক কলহের জের ধরে তার জন্মদাতা মা ও আড়াই মাসের তারই সন্তানকে ছুলফি দিয়ে হত্যা করে। ঘটনার সত্যতা নিশ্চিত করে সরমঙ্গল ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান এহসান চৌধুরী জানান, মূলত তার স্ত্রীকে হত্যা করতে ছিল। ঘটনার আঁছ পেয়ে তার স্ত্রী ৩ সন্তান নিয়ে পালাতে পারলেও অপর ২ জনের মধ্যে অনিককে হত্যা করে, এ সময় একরামের সাড়ে ৩ বছরের কন্যা মাহমুদা আহত হয়। তাকে চিকিৎসার জন্য দিরাই হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে বলে জানান দিরাই থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) বায়েস আলম। জোড়া খুনের বিষয়টি নিশ্চিত করে তিনি আরো জানান, পারিবারিক কলহের জের ধরে নৃশংস এই হত্যাকাণ্ডের ঘটনা ঘটেছে। এলাকাবাসির সহযোগিতায় একরামকে আটক করে হত্যাকাণ্ডে ব্যবহৃত এককাইট্টা (ছুলফি) উদ্ধার করা হয়েছে। ঘটনাস্থল পরিদর্শন করে লাশ উদ্ধারের পর ময়না তদন্তের জন্য সুনামগঞ্জ মর্গে পাঠানো হয়েছে। উল্লে¬খ্য, এলাকায় পেশাদার চোর হিসেবে পরিচিত মৃত অসমত আলীর ছেলে ৫ সন্তানের জনক একরামকে কয়েকদিন পূর্বে চুরির দায়ে গ্রামবাসি গণপিটুনি দেয়। এ ব্যাপারে মামলা দায়েরের প্রস্তুতি চলছে বলে জানান দিরাই থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা।

নিউজটি শেয়ার করুন

© All rights reserved © 2017-2019 AmarSurma.Com
Design & Developed BY ThemesBazar.Com
error: