শনিবার, ০১ এপ্রিল ২০২৩, ০৯:৫৮ পূর্বাহ্ন

ব্রেকিং নিউজ :
প্রতিনিধি আবশ্যক, অনলাইন পত্রিকা আমার সুরমা ডটকমের জন্য প্রতিনিধি নিয়োগ দেয়া হবে। আগ্রহীরা যোগাযোগ করুন : ০১৭১৮-৬৮১২৮১, ০১৬২৫-৬২৭৬৪৩
নজরদারির নামে জুমার খোতবা নিয়ন্ত্রণ মুসলিম জনতা মেনে নেবে না: হেফাজত

নজরদারির নামে জুমার খোতবা নিয়ন্ত্রণ মুসলিম জনতা মেনে নেবে না: হেফাজত

hefazotআমার সুরমা ডটকমনজরদারীর নামে জুমার খোতবা নিয়ন্ত্রণের কোনো হটকারী পদক্ষেপ জনগণ মেনে নেবে না বলে মন্তব্য করেছে হেফাজতে ইসলাম। রাজধানীর বারিধারার অস্থায়ী কার্যালয়ে হেফাজতে ইসলাম ঢাকা মহানগরীর এক জরুরি সভায় সভাপতির বক্তব্যে আল্লামা নূর হোছাইন কাসেমী এ মন্তব্য করেন। আল্লামা কাসেমী বলেন, জুমা মুসলিম জাতির জন্য সাপ্তাহিক ঈদের দিন। এ দিনের গুরুত্বপূর্ণ আমল হলো জুমার নামাজ ও তার পূর্বে খতীব সাহেবদের মুসুল্লীদের উদ্দেশ্যে ইহজগতে আত্মশুদ্ধিমূলক কোরআন ও সুন্নার আলোকে বয়ান বা খোতবা। যা রাসূল স. সাহাবায়ে কেরামদের উদ্দেশ্যে মসজিদে নববীতে করেছেন, তারই অনুকরণে মুসলিম জাতির পারিবারিক, সামাজিক ও রাষ্ট্রীয় জীবনে শৃংখলা, পরস্পরে ভাতৃত্ব বন্ধন সুদৃঢ়করণ ও মানবিক দায়িত্ববোধ সৃষ্টির মাধ্যমে শান্তিপূর্ণ আদর্শ সমাজ গঠনে কোরআন ও হাদীসের আলোকে খতীব সাহেবগণ উদ্বুদ্ধ ও উৎসাহ প্রদান করে থাকেন। যার মাধ্যমে সমাজের নানাবিধ সমস্যার নিরসন হয়ে থাকে। অভদ্ররা ভদ্রতা এবং বেয়াদব ও সন্ত্রাসীরা আদব-আখলাক ও শৃংখলা শিখতে পায়। ইহাই বাস্তবতা। পক্ষান্তরে জুমার খোতবায় জঙ্গি আর সন্ত্রাসী তৈরী হয় বলে যা বলা হচ্ছে তা পাগলের প্রলাপ। তিনি বলেন, কাকে খুশি করার জন্য একটি শান্তিময় সমাজে জুমার খোতবায় নজরদারীর নামে বিশৃংখলা সৃষ্টি করতে চান, মুসলিম জনতা জানতে চায়। আমরা পরিষ্কারভাবে বলে দিতে চাই, নজরদারীর নামে জুমার খোতবা নিয়ন্ত্রণের কোনো হটকারী পদক্ষেপ জনগণ মেনে নিবে না, নিতে পারে না। সভায় আরো বক্তব্য রাখেন মাও. আবুল কালাম, মাও. আতাউল্লাহ হাফিজ্জী, মাও. মোস্তফা আজাদ, মাও. জহীরুল হক ভূইয়া, মাও. হাকীম আব্দুল করীম, ড. আহমদ আব্দুল কাদের, মুফতী আব্দুস সাত্তার, শেখ গোলাম আসগর, মাও. আহমদ আলী কাসেমী, মাও. মঞ্জুরুল ইসলাম, মাও. বাহাউদ্দীন যাকারিয়া, মাও. ফজলুল করীম কাসেমী ও মাও. মুজিবুর রহমান হামিদী প্রমুখ।

নিউজটি শেয়ার করুন

© All rights reserved © 2017-2019 AmarSurma.Com
Design & Developed BY ThemesBazar.Com
error: