বুধবার, ২৮ Jul ২০২১, ০২:১৪ অপরাহ্ন

ব্রেকিং নিউজ :
প্রতিনিধি আবশ্যক, অনলাইন পত্রিকা আমার সুরমা ডটকমের জন্য প্রতিনিধি নিয়োগ দেয়া হবে। আগ্রহীরা যোগাযোগ করুন : ০১৭১৮-৬৮১২৮১, ০১৬২৫-৬২৭৬৪৩
ফরাসি প্রেসিডেন্ট ম্যাক্রোঁর রাস্তায় থাপ্পড় খাওয়া নিয়ে নেটিজেনদের প্রতিক্রিয়া

ফরাসি প্রেসিডেন্ট ম্যাক্রোঁর রাস্তায় থাপ্পড় খাওয়া নিয়ে নেটিজেনদের প্রতিক্রিয়া

আমার সুরমা ডটকম ডেস্ক:

সাধারণ জনগণ ও শিক্ষার্থীদের সাথে সৌজন্য সাক্ষাত করতে গিয়ে রাস্তায় থাপ্পড় খেলেন ফরাসি প্রেসিডেন্ট ইমান্যুয়েল ম্যাক্রোঁ। মঙ্গলবার দক্ষিণ পূর্বাঞ্চলীয় ফ্রান্সের ড্রোম অঞ্চলে সরকারি সফরকালে এই ঘটনা ঘটে। ইতোমধ্যে থাপ্পড় মারার দৃশ্য সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে বিশ্বময় ভাইরাল হয়েছে। ফরাসি প্রেসিডেন্ট ম্যাক্রোঁর রাস্তায় থাপ্পড় খাওয়া নিয়ে সোশ্যাল মিডিয়ায় নানা প্রতিক্রিয়া ব্যক্ত করেছেন নেটিজেনরা।

জানা যায়, মঙ্গলবার সরকারি সফরকালে জনতার সঙ্গে সৌজন্য সাক্ষাৎ করতে ব্যারিকেডের কাছে যান ফরাসি প্রেসিডেন্ট। এসময় ব্যারিকেডের উল্টো দিক থেকে এক যুবক হাত বাড়িয়ে আচমকা প্রেসিডেন্টের গালে সজোরে থাপ্পড় মেরে বসেন। নিরাপত্তা সদস্যরা সঙ্গে সঙ্গেই ম্যাক্রোঁকে দ্রুত সেখান থেকে সরিয়ে নেন। এ ঘটনায় এখন পর্যন্ত থাপ্পড় মারা যুবকসহ ২জনকে গ্রেফতার করা হয়েছে।

এনিয়ে তৃতীয়বারের মতো ম্যাক্রোঁ জনসম্মুখে হামলার স্বীকার হলেন। এরআগে ২০১৭ সালের মার্চে ও ২০১৬ সালে প্যারিসে ডিম হামলার শিকার হয়েছিলেন তিনি।

ফ্রান্সে মহানবী হযরত মুহাম্মদ (সা.)-কে কটাক্ষ করে ব্যঙ্গচিত্র প্রদর্শনীর পক্ষে অবস্থান নিয়েছিলেন ম্যাক্রোঁ। সেসময় তিনি ইসলাম ধর্মকে নিয়েও অবমাননাকর মন্তব্য করেছিলেন। তার প্রতিবাদে সোচ্চার হয়েছিলো সারা বিশ্বের মুসলমান ও শান্তি প্রিয় মানুষ। উঠেছিলো ফ্রান্সের পণ্য বয়কটের ডাক।

মহানবী (সা.) ও ইসলাম নিয়ে অবমাননাকর মন্তব্যের প্রতি ইঙ্গিত করে এমডি মাহিম ফেইসবুকে লিখেন, ‘যারা আমার নবী (সা.) এবং ইসলামের সাথে বেয়াদবি করবে তাদেরকে এভাবে অপমানিত হতে হবে, সেটা আবারও প্রমাণিত।’

নাজমা বেগম লিখেন, ‘রাসুল (সা.)-এর সাথে অসৌজন্যমূলক কথাবার্তায় সহায়তা করলে পৃথিবীতে তার শাস্তি অবধারিত।’

এই ঘটনাকে উপযুক্ত উপহার বলে মন্তব্য করে মুহাম্মদ নুরনবী লিখেন, ‘এটাই প্রমাণ হলো- যত বড়ই শক্তিশালী হোক কিনা আল্লাহ ছাড় দেন, ছেড়ে দেন না। এটা তার উপযুক্ত উপহার!’

মুহাম্মদ জাবিদ জারিফ লিখেন, ‘আল্লাহ্ তায়ালা যখন যাকে খুশি সম্মানিত করেন, যখন যাকে খুশি অপমানিত করেন। এই মহাবিশ্বের এমন কারও ক্ষমতা নেই যে, স্রষ্টার সিদ্ধান্তকে বদলাতে পারে, তার ইচ্ছা ব্যতিরেকে।’

‘আল্লাহ কিছু মানুষকে দুনিয়াতেই মৃত্যুর চেয়ে বেশি যন্ত্রণা দেয়। এ অপমান ম্যাক্রোঁ সারা জীবন মনে রাখবে!’ – এমডি রফিকুল ইসলামের মন্তব্য।

নিউজটি শেয়ার করুন

© All rights reserved © 2017-2019 AmarSurma.Com
Design & Developed BY ThemesBazar.Com
error: