মঙ্গলবার, ২৯ নভেম্বর ২০২২, ০৫:১৫ পূর্বাহ্ন

ব্রেকিং নিউজ :
প্রতিনিধি আবশ্যক, অনলাইন পত্রিকা আমার সুরমা ডটকমের জন্য প্রতিনিধি নিয়োগ দেয়া হবে। আগ্রহীরা যোগাযোগ করুন : ০১৭১৮-৬৮১২৮১, ০১৬২৫-৬২৭৬৪৩
বাংলাদেশের আকাশে চাঁদ দেখা গেছে, কাল খুশির ঈদ

বাংলাদেশের আকাশে চাঁদ দেখা গেছে, কাল খুশির ঈদ

মুহাম্মদ আব্দুল বাছির সরদার
আজ শুক্রবার সন্ধ্যার পর বাংলাদেশের আকাশে পবিত্র শাওয়াল মাসের চাঁদ দেখা গেছে। বছর ঘুরে আবার এসেছে খুশির ঈদ। এক মাস সিয়াম সাধনার পর শনিবার এই খুশির ঈদ উদযাপনের জন্য প্রস্তুত বাংলাদেশসহ বিশ্বের বিভিন্ন দেশের মুসলমানরা। বাংলাদেশের প্রতিটি মুসলমানের হৃদয়ে অনুরণিত হচ্ছে জাতীয় কবি কাজী নজরুল ইসলামের সেই কালজয়ী গান ‘রমজানের ঐ রোজার শেষে এল খুশির ঈদ’। ঈদের চাঁদ উঠেছে এমন খবর শোনার পর পরই ঘরে-ঘরে জনে-জনে শুরু হয়েছে ঈদের আনন্দ। শনিবার সকালে ঈদুল ফিতরের নামাজের পরই কোলাকুলিতে ঘোষিত হবে সৌহার্দ্য আর ভ্রাতৃত্বের মহিমা।
শুক্রবার বিকেল থেকেই এক ফালি বাঁকা চাঁদের আশায় পশ্চিমাকাশে বারবার তাকিয়েছিল সবাই। শাওয়াল মাসের চাঁদের খবর নিতে বৈঠকে বসেছিল জাতীয় চাঁদ দেখা কমিটিও। সবার কাঙ্খিত বাঁকা চাঁদ দেখা গেছে অবশেষে। শুক্রবার সন্ধ্যা সাড়ে ৭টায় চাঁদ দেখা কমিটির বৈঠকে চাঁদ দেখার বিষয়টি নিশ্চিত করে। এর পরেই ধর্মমন্ত্রী মতিউর রহমান চাঁদ দেখার বিষয়টি আনুষ্ঠানিক ঘোষণা দেন এবং দেশবাসিকে ঈদুল ফিতরের শুভেচ্ছা জানান। শনিবার উদযাপিত হবে আনন্দের ঈদ।
মুসলিম সম্প্রদায়ের সবচেয়ে বড় এই আনন্দ-উৎসব সামাজিক সম্প্রীতি আর সাম্যচেতনায় ভাস্বর। ধনী-গরিব নির্বিশেষে সবাই ঈদের আনন্দে শামিল হবে-এটাই এই উৎসবের মূল মর্মবাণী। মাসজুড়ে রোজা পালনের মাধ্যমে সংযম আর ত্যাগের শিক্ষা অর্জন এই আনন্দের জন্য প্রস্তুত করেছে প্রতিটি মুসলমানকে। ধনী-গরিব সবাই সাধ্যমতো চেষ্টা করছে স্বজন-পরিজন নিয়ে দিনটি উদযাপনের। ঈদের কেনাকাটা সেরে তাই সবাই ছুটেছে মাটি ও নাড়ির টানে শহর ছেড়ে গ্রামে। স্বজন-পরিজন, বন্ধু-বান্ধবের সঙ্গে মিলনের বাঁধভাঙা উচ্ছ্বাস দেখা গেছে পথে পথে। এখন ঘরে ঘরে চলছে পিঠা-পায়েস বানানোর তোড়জোড়। শিশু-তরুণ-বৃদ্ধ সবাই প্রস্তুতি নিচ্ছে ঈদগায়ে গিয়ে নামাজ আদায়ের। কিশোরী-তরুণীরা বসছে মেহেদিতে হাত রাঙাতে।
পবিত্র ঈদুল ফিতরের জামাতের জন্য প্রস্তুত রাজধানীসহ দেশের ঈদগাহগুলো। বরাবরের মতো দেশের বৃহত্তম ঈদের জামাতের জন্য প্রস্তুত কিশোরগঞ্জের শোলাকিয়া ঈদগাহ ময়দান। রাজধানীতে তিন শতাধিকেরও বেশি স্থানে ঈদ জামাতের ব্যবস্থা গ্রহণ করেছে ঢাকা দক্ষিণ ও উত্তর সিটি করপোরেশন। রাজধানীতে ঈদের প্রধান জামাত অনুষ্ঠিত হবে জাতীয় ঈদগাহ ময়দানে। এছাড়া বায়তুল মোকাররমসহ রাজধানীর বিভিন্ন এলাকার মাঠ ও মসজিদে ঈদের জামাত অনুষ্ঠিত হবে। ঈদ উপলক্ষে দেশবাসী ও মুসলিম উম্মাহর অব্যাহত শান্তি, অগ্রগতি ও সমৃদ্ধি কামনা করে বাণি দিয়েছেন রাষ্ট্রপতি আবদুল হামিদ, প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা ও বিএনপি চেয়ারপারসন খালেদা জিয়া।

নিউজটি শেয়ার করুন

© All rights reserved © 2017-2019 AmarSurma.Com
Design & Developed BY ThemesBazar.Com
error: