শুক্রবার, ২৩ ফেব্রুয়ারী ২০২৪, ১১:৪৩ পূর্বাহ্ন

ব্রেকিং নিউজ :
প্রতিনিধি আবশ্যক, অনলাইন পত্রিকা আমার সুরমা ডটকমের জন্য প্রতিনিধি নিয়োগ দেয়া হবে। আগ্রহীরা যোগাযোগ করুন : ০১৭১৮-৬৮১২৮১, ০১৬২৫-৬২৭৬৪৩

যে কারণে জয়ী ট্রাম্প

rtx24zjd_248284আমার সুরমা ডটকম ডেক্সসব জরিপ ও ধারণা মিথ্যা প্রমাণ করে যুক্তরাষ্ট্রের ৪৫তম প্রেসিডেন্ট নির্বাচিত হয়েছেন রিপাবলিকান দলের মনোনীত প্রার্থী ডোনাল্ড ট্রাম্প। অথচ প্রেসিডেন্ট হওয়া তো দূরের কথা, ট্রাম্প যোগ্য প্রার্থী কিনা সে বিষয়ে শুরু থেকে ছিল বির্তক ছিল। এমনকী প্রার্থী হওয়ার পর অনেকে ধারণা করেছিলেন শেষ পর্যন্ত হয়ত প্রেসিডেন্ট হওয়ার দৌড়ে থাকতে পারবেন না ধনকুবের ট্রাম্প। কিন্তু এত কিছু সত্ত্বেও কী কৌশলে শেষ হাসি হাসলেন ট্রাম্প?

বিবিসির এক প্রতিবেদনে বলা হয়েছে, নির্বাচনে জিততে তিনি বেশ কয়েকটি কৌশল অবলম্বন করেছিলেন; যা তার প্রতিদ্বন্দ্বী প্রার্থী হিলারি ক্লিনটনের হয়ত কল্পনায়ও ছিলনা। ‘আমেরিকাকে আবার মহান করুন’ এই শ্লোগান দিয়ে প্রচারে নামেন রিপাবলিকান দলের প্রার্থী ডোনাল্ড ট্রাম্প। প্রচারণার সময় আমেরিকার অর্থনীতিকে শক্তিশালী করার প্রতিশ্রুতি দেন তিনি। ট্রাম্প বলেন, মেক্সিকো ও যুক্তরাষ্ট্রের মধ্যে দেয়াল তুলে দেওয়া এবং মুসলমানদের অভিবাসন সাময়িকভাবে বন্ধ রাখার কথা। এতে তিনি ব্যাপক সাড়া পান শ্বেতাঙ্গ আমেরিকানদের কাছে থেকে। তাই অনেকের কাছে ট্রাম্প ছিলেন ‘খাঁটি’ আমেরিকান প্রার্থী।

যেসব জায়গায় দরকার ছিল, সেগুলোতে জোরালো আঘাত হেনেছেন ট্রাম্প। যুক্তরাষ্ট্রের মধ্য-পশ্চিমাঞ্চলে ডেমোক্রেটদের ঘাঁটি হিসেবে পরিচিত অঙ্গরাজ্যগুলোতে ব্যাপক প্রচারণা চালান তিনি। মূলত কৃষ্ণাঙ্গ ও শ্রমিক শ্রেণির শ্বেতাঙ্গ ভোটারদের ওপর নির্ভর করে রাজ্যগুলোতে কয়েক দশক ধরে গেঁড়ে বসেছিল ডেমোক্রেটরা। কিন্তু ওই সব শ্বেতাঙ্গ শ্রমিক এবার দল বেঁধে ট্রাম্পকে ভোট দিয়েছেন। গ্রামীণ মানুষেরও ভোট পেয়েছেন ট্রাম্প। বিশেষ করে যারা কায়েমি শক্তির কাছে উপেক্ষিত বোধ করেন এবং উপকূলীয় অভিজাতদের পেছনে পড়েছিলেন। তারা এবার ট্রাম্প শিবির থেকে নিজের পক্ষে আওয়াজ শুনেছেন। ট্রাম্প জয়ী হওয়ার পর এখন অনেকে বলছেন, অনেকটা পরিকল্পিতভাবে ট্রাম্প নির্বাচনী প্রচারণার সময় বির্তকের জন্ম দিয়েছেন। এর ফলে সব সময় আলোচনার কেন্দ্রে ছিলেন ট্রাম্প।

দুই সপ্তাহ আগেও ট্রাম্পের এই বিজয়ের পথ ততোটা স্পষ্ট ছিলনা। হিলারির ব্যক্তিগত ইমেইল সার্ভারের বিষয়ে এফবিআই পরিচালক জেমস কোমি নতুন করে তদন্তের কথা ঘোষণা করার পর পরিস্থতি বেশ পাল্টে যায়। জরিপে জোরালো প্রতিযোগিতার আভাস থাকলেও কোমির ওই চিঠির কারণে ট্রাম্পের শক্ত অবস্থান তৈরি হয়। অন্যদিকে হিলারির প্রেসিডেন্ট হওয়ার আশা মলিন হয়েছে। এ যাবতকালের সবচেয়ে ব্যতিক্রমী রাজনৈতিক প্রচারণা চালিয়েছেন ট্রাম্প, কিন্তু প্রমাণ হলো, ট্রাম্প অনেক অভিজ্ঞ রাজনীতিকের চেয়েও ভাল জানেন। ট্রাম্প উইসকনসিন ও মিশিগানের মতো রাজ্যগুলো সফর করেছেন; যেগুলোকে অনেকে দুর্গম বলেছিল। মানুষের দ্বারে দ্বারে না গিয়ে তিনি বড় বড় সমাবেশ করে ভোটারদের ঘর থেকে বের করে এনেছেন।

নিউজটি শেয়ার করুন

© All rights reserved © 2017-2019 AmarSurma.Com
Design & Developed BY ThemesBazar.Com
error: