বুধবার, ০৮ ফেব্রুয়ারী ২০২৩, ১০:৫৯ অপরাহ্ন

ব্রেকিং নিউজ :
প্রতিনিধি আবশ্যক, অনলাইন পত্রিকা আমার সুরমা ডটকমের জন্য প্রতিনিধি নিয়োগ দেয়া হবে। আগ্রহীরা যোগাযোগ করুন : ০১৭১৮-৬৮১২৮১, ০১৬২৫-৬২৭৬৪৩
সংবাদ শিরোনাম :
এইচএসসির ফল প্রকাশ, পাসের হার ৮৫.৯৫ শতাংশ নিহতের সংখ্যা ৫০০০ ছাড়ালো, তিন মাসের জরুরি অবস্থা জারি তুরস্কে রাজাকার ও বিএনপির লোকদের নিয়ে সুরঞ্জিত সেনগুপ্তের শোকর‌্যালি পাকিস্তানের সাবেক সামরিক শাসক পারভেজ মোশাররফের মৃত্যু চট্টগ্রাম কলেজের ১৭৫ শিক্ষার্থী ৩ ঘন্টার অভিযানে ডুবোচর থেকে উদ্ধার ফরিদপুরে একই পরিবারে ৫ সদস্যের ইসলাম ধর্ম গ্রহণ কে হচ্ছেন রাষ্ট্রপতি জানা যাবে মঙ্গলবার বিশ্ব হাত গুটিয়ে বসে থাকলে আরেকটি রোহিঙ্গা গণহত্যা হবে: জাতিসঙ্ঘ ১০ দফা আদায়ে ব্যর্থ হলে বাংলাদেশ ব্যর্থ রাষ্ট্রে পরিণত হবে: মির্জা ফখরুল বহিষ্কৃত নেতার সমাবেশে জেলা সভাপতি: উজ্জীবিত নেতাকর্মীরা
রাতেই ফিরিয়ে আনা হচ্ছে নূর হোসেনকে

রাতেই ফিরিয়ে আনা হচ্ছে নূর হোসেনকে

nur_89464_103535আমার সুরমা ডটকম : নারায়ণগঞ্জের আলোচিত সাত খুন মামলার প্রধান আসামি নূর হোসেনকে আজ রাতেই বাংলাদেশে ফিরিয়ে আনা হচ্ছে। সরকারি একাধিক সূত্রে এতথ্য জানা গেছে। সূত্রগুলো জানায়, আজ রাতেই নূর হোসেনকে বেনাপোল সীমান্ত দিয়ে বাংলাদেশের ফিরিয়ে আনা হচ্ছে। আমাদের বেনাপোল প্রতিনিধি আনিসুর রহমান জানিয়েছেন, সন্ধ্যা সাতটার পর তাকে বাংলাদেশ পুলিশের কাছে হস্তান্তর করার কথা থাকলেও এখনো (সাড়ে সাতটায়) সীমান্তে আনা হয়নি। তিনি জানান, বেনাপোল সীমান্তে দুই দেশের পুলিশের সিনিয়র কর্মকর্তারা রয়েছেন। স্থানীয় সাংবাদিকরাও সীমান্ত এলাকায় অপেক্ষা করছেন। প্রসঙ্গত, গতবছরের ২৭ এপ্রিল আইন-শৃঙ্খলা রক্ষাকারী বাহিনীর পরিচয়ে নারায়ণগঞ্জ সিটি কর্পোরেশনের (নাসিক) সিদ্ধিরগঞ্জ এলাকার ২ নম্বর ওয়ার্ডের কাউন্সিলর ও প্যানেল মেয়র নজরুল ইসলামসহ তার কয়েকজন সহযোগীকে তুলে নিয়ে যাওয়া হয়। পরে ৩০ এপ্রিল নারায়ণগঞ্জের বন্দর উপজেলার মদনগঞ্জের শান্তিনগর এবং চরধলেশ্বরী এলাকায় শীতলক্ষ্যা নদী থেকে প্যানেল মেয়র ও কাউন্সিলর নজরুল ইসলাম, আইনজীবী চন্দন কুমার সরকার, মনিরুজ্জামান স্বপন, তাজুল ইসলাম এবং গাড়িচালক ইব্রাহিম ও লিটনসহ অপহৃত ৬ জনের লাশ উদ্ধার করা হয়েছে। ইটবোঝাই সিমেন্টের ব্যাগ দিয়ে বাঁধা অবস্থায় নদীতে ডোবানো হয়েছিল লাশগুলো। পা ছিল দড়ি দিয়ে বাঁধা। হাত পেছনে দড়ি দিয়ে বাঁধা ছিল। মুখম-ল পলিথিন দিয়ে গলার কাছে বাঁধা ছিল। পেট ধারালো অস্ত্র দিয়ে সোজাসুজি ফাড়া ছিল। লাশ উদ্ধারের পর ওই বছরের ২ মে কালকাতায় পালিয়ে যান ঘটনার নেপথ্যের খলনায়ক নূর হোসেন। পরে তিনি গ্রেফতার হন কলকাতা পুলিশের হাতে। অবৈধভাবে অনুপ্রবেশ দায়ে তার বিরুদ্ধে ভারতীয় আইনে মামলা হয়। পরে ভারতের আদালত তাকে বাংলাদেশে ফেরত দেয়ার নির্দেশ দেন। নারায়ণগঞ্জের আলোচিত এ হত্যাকাণ্ডে জড়িত থাকার অভিযোগ মন্ত্রী মোফাজ্জল হোসেন চৌধুরী মায়ার মেয়ের জামাই তারেকসহ র‌্যাবের তিন কর্মকর্তা গ্রেফতার হন।

নিউজটি শেয়ার করুন

© All rights reserved © 2017-2019 AmarSurma.Com
Design & Developed BY ThemesBazar.Com
error: