মঙ্গলবার, ০৬ ডিসেম্বর ২০২২, ১১:০৯ অপরাহ্ন

ব্রেকিং নিউজ :
প্রতিনিধি আবশ্যক, অনলাইন পত্রিকা আমার সুরমা ডটকমের জন্য প্রতিনিধি নিয়োগ দেয়া হবে। আগ্রহীরা যোগাযোগ করুন : ০১৭১৮-৬৮১২৮১, ০১৬২৫-৬২৭৬৪৩
তিন সাংবাদিককে হাসপাতালে আটকে পিটুনি

তিন সাংবাদিককে হাসপাতালে আটকে পিটুনি

b-bariaআমার সুরমা ডটকম জেলার কসবায় বেসরকারি একটি হাসপাতালে ভুল চিকিৎসায় এক নবজাতকের মৃত্যুর অভিযোগ উঠেছে। শনিবার এই সংবাদ সংগ্রহ করতে গেলে হাসপাতাল কর্তৃপক্ষ তিন সাংবাদিককে পিটিয়ে জখম করে এবং ভিডিও ক্যামেরা ছিনিয়ে তাঁদের আটকে রাখে। পরে পুলিশ গিয়ে তিন সাংবাদিককে আহতাবস্থায় উদ্ধার করে কসবা উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে ভর্তি করে। এ ঘটনায় কসবা থানায় মামলা হয়েছে। পুলিশ হাসপাতালের পরিচালককে গ্রেপ্তার করেছে। হামলার ঘটনার প্রতিবাদে বিক্ষোভ মিছিল করেছেন স্থানীয় সাংবাদিকরা। আহত সাংবাদিকরা হলেন বিজয় টেলিভিশনের জেলা প্রতিনিধি আনোয়ার হোসেন উজ্জ্বল, আমার দেশ পত্রিকার কসবা প্রতিনিধি মো. অলিউল্লাহ সরকার অতুল, ডাক প্রতিদিন পত্রিকার কসবা প্রতিনিধি মো. রুবেল আহাম্মদ।
রোগীর স্বজন তারেক জানান, উপজেলার কায়েমপুর ইউনিয়নের কালতা দিঘীরপাড় গ্রামের সেলিম মিয়ার স্ত্রী নিলুফা আক্তার (২৫) প্রসব বেদনা নিয়ে গত বৃহস্পতিবার (৭ এপ্রিল) দুপুরে উপজেলার চৌমুহনী বসুন্ধরা হসপিটাল (প্রা.) লিমিটেডে ভর্তি হন। তড়িঘড়ি করে তাঁর অস্ত্রোপচার করেন চিকিৎসকরা। এ সময় একটি মেয়েসন্তানের জন্ম হয়। এর কিছুক্ষণ পর হাসপাতাল কর্তৃপক্ষ নবজাতকের অবস্থা আশঙ্কাজনক জানিয়ে তাকে অন্য হাসপাতালে নিতে বলে। স্বজনরা নবজাতককে কসবা উপজেলার অবসরপ্রাপ্ত স্বাস্থ্য ও পরিবার পরিকল্পনা কর্মকর্তা মো. শহীদুল্লাহর কাছে নিয়ে গেলে তিনি মৃত ঘোষণা করেন।
তারেক জানান, সন্তানের মৃত্যুর পর নিলুফা আক্তারের শারীরিক অবস্থার অবনতি হয়। পরদিন শুক্রবার সকালে তাঁর দ্বিতীয়বার অস্ত্রোপচার করেন চিকিৎসকরা। এতেও রোগীর অবস্থার উন্নতি হয়নি। হাসপাতাল কর্তৃপক্ষ আজ শনিবার ৬০ হাজার টাকা বিল আদায় করে রোগীকে অন্যত্র নিয়ে যেতে বলে। এ নিয়ে এলাকায় ব্যাপক চাঞ্চল্য সৃষ্টি হয়।
খবর পেয়ে ওই তিন সাংবাদিক সংবাদের তথ্য সংগ্রহ করতে আজ বসুন্ধরা হসপিটালে যান। এ সময় তাঁরা পেশাগত পরিচয় দিয়ে হাসপাতালের পরিচালক গোলাম মোস্তফার কাছে বিষয়টি জানতে চান। গোলাম মোস্তফার লোকজন উত্তেজিত হয়ে সাংবাদিকদের ওপর চড়াও হন। পরে তাঁদের মারধর করে হাসপাতালের একটি কক্ষে আটকে রাখেন। ঘটনার প্রতিবাদে বাংলাদেশ মফস্বল সাংবাদিক ফোরামের কসবা উপজেলা শাখার উদ্যোগে একটি বিক্ষোভ মিছিল বের হয়। বিক্ষোভ মিছিলটি কসবা পৌর শহরের প্রধান প্রধান সড়ক প্রদক্ষিণ শেষে কসবা থানা চত্বরে গিয়ে শেষ হয়। বিক্ষোভ মিছিলে কসবায় কর্মরত সাংবাদিকরা অংশ নেন।

নিউজটি শেয়ার করুন

© All rights reserved © 2017-2019 AmarSurma.Com
Design & Developed BY ThemesBazar.Com
error: