বৃহস্পতিবার, ৩০ মে ২০২৪, ০১:১২ অপরাহ্ন

ব্রেকিং নিউজ :
প্রতিনিধি আবশ্যক: অনলাইন পত্রিকা আমার সুরমা ডটকমের জন্য প্রতিনিধি নিয়োগ দেয়া হবে। আগ্রহীরা যোগাযোগ করুন : ০১৭১৮-৬৮১২৮১, ০১৭৯৮-৬৭৬৩০১
ছাতকের শিক্ষা অফিসারসহ দু’জনের মৃত্যুতে সিলেট জুড়ে শোক

ছাতকের শিক্ষা অফিসারসহ দু’জনের মৃত্যুতে সিলেট জুড়ে শোক

চান মিয়া, বিশেষ সংবাদদাতা (সুনামগঞ্জ): ছাতকের অধিবাসি ও সাবেক উপজেলা সহকারি শিক্ষা অফিসার চিন্তাহরণ দাস ও সিলেট পলিটেকনিক্যাল ইন্সটিটিউটের মেধাবী রুহুল আমিন দুলনের বৃহস্পতিবার সন্ধ্যায় সড়ক দুর্ঘটনায় মৃত্যুতে সর্বত্র শোকের ছায়া নেমে এসেছে। চিন্তাহরণ দাস গোলাপগঞ্জ উপজেলা শিক্ষা অফিসার হিসেবে কর্মরত থাকায় বৃহস্পতিবার অফিসের ডিউটি সেরে শুক্র ও শনিবার দু’দিনের ছুটিতে ছাতকস্থ বাসায় ফেরার পথে সিলেট-সুনামগঞ্জ সড়কের চানপুর এলাকায় সড়ক দুর্ঘটনায় ঘটনাস্থলেই মৃত্যুবরণ করেন। সিলেট নগরীর বন্দর থেকে ছাতক আসার জন্যে একই সিএনজি অটোরিকশার যাত্রি সিলেট পলিটেকনিক্যাল ইন্সটিটিউটের ছাত্র রুহুল আমিন দুলন মারা যায়। সে কালারুকা ইউনিয়নের মুক্তিরগাঁও গ্রামের রোসমত আলীর ছেলে। শুক্রবার বাদ আছর মুক্তিরগাঁও জামে মসজিদে নামাজে জানাযা শেষে লাশ পারিবারিক কবরস্থানে দাফন করা হয়। সে মুক্তিরগাঁও জামেয়া মোহাম্মদীয়া মাদরাসার ছাত্র ছিল। এদিকে চিন্তাহরণ দাসের লাশ ২৩ জুলাই রোববার দাহ করা হবে। তার দু’সন্তানের মধ্যে এক পুত্র ভারতে চাকুরী ও এক মেয়ে সিলেট নর্থইস্ট মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে লেখাপড়া করছে। তার পুত্র ভারত থেকে স্ব-পরিবারে দেশে ফিরে রোববার লাশ দাহ করবে বলে তাদের পারিবারিক সূত্রে জানা গেছে। এছাড়া তার মূল বাড়ি ছিল সুনামগঞ্জের বিশ্বম্ভরপুর উপজেলার নিয়ামতপুর গ্রামে। বর্তমানে ছাতকের বাগবাড়িতে স্থায়ীভাবে বসবাস করছেন। তার স্ত্রী ডলিরানী বাগবাড়ি মডেল সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের সহকারি শিক্ষিকা, এক সন্তানের জনক তার সহোদর চুনিলাল দাস বাতিরকান্দি সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক ও তার স্ত্রী একটি প্রাথমিক বিদ্যালয়ে শিক্ষকতা করছেন। চিন্তাহরণ দাস ছাতকে সহকারি শিক্ষা অফিসার, বিশ্বনাথ ও গোলাপগঞ্জে অত্যন্ত দক্ষতার সাথে উপজেলা শিক্ষা অফিসারের দায়িত্ব পালন করছিলেন।

এদিকে বৃহস্পতিবার সন্ধ্যায় সিলেট সদরের চানপুর এলাকায় কাভার্ডভ্যান ও সিএনজি-অটোরিকশার মুখোমুখি সংঘর্ষে নিহত দুলন পরীক্ষা শেষ করে বাড়ি ফিরছিলেন। জালালাবাদ থানার ওসি শফিকুল ইসলামের নেতৃত্বে দু’জনের লাশ উার করে সিলেট ওসমানী মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে প্রেরণ করা হয়। দু’জনের অকাল মৃত্যুতে বৃহত্তর সিলেট জুড়ে শোকের ছায়া নেমে এসেছে।
অন্যদিকে চিন্তাহরণ দাস ও শিক্ষার্থী দুলনের অকাল মৃত্যুতে শোক ও শোকাহত পরিবারের প্রতি সমবেদনা জানিয়েছেন শিক্ষামন্ত্রী নূরুল ইসলাম নাহিদ, সিলেট প্রাথমিক ও গণশিক্ষা অধিদপ্তরের উপ-পরিচালক তাহমিনা খাতুন, ছাতক-দোয়ারাবাজার আসনের এমপি মুহিবুর রহমান মানিক, সাবেক এমপি সুনামগঞ্জ জেলা বিএনপি সভাপতি কলিম উদ্দিন আহমদ মিলন, উপজেলা চেয়ারম্যান অলিউর রহমান চৌধুরী বকুল, সাবেক চেয়ারম্যান মিজানুর রহমান চৌধুরী মিজান, সাবেক কেন্দ্রীয় ছাত্রলীগ সদস্য শামীম আহমদ চৌধুরী, উপজেলা ভাইস চেয়ারম্যান আবু সাহাদাত মো. লাহিন, সাবেক ভাইস চেয়ারম্যান ও জেলা বিএনপির সাংগঠনিক সম্পাদক গোলাম আম্বিয়া মাজকুর পাবেল, উপজেলা শিক্ষা অফিসার মানিক চন্দ্র দাস, ছাতক প্রেসক্লাব সভাপতি আলহাজ্ব গিয়াস উদ্দিন তালুকদার, সাধারণ সম্পাদক আনোয়ার হোসেন রনি, উপজেলা জামায়াতের আমীর এভকট রেউল করিম রেজা, সেক্রেটারী আকবর আলী, কালারুকা ইউপির সাবেক চেয়ারম্যান নজরুল হক প্রমূখ।

নিউজটি শেয়ার করুন

© All rights reserved © 2017-2019 AmarSurma.Com
Design & Developed BY ThemesBazar.Com