মঙ্গলবার, ২৫ Jun ২০২৪, ০১:১৮ পূর্বাহ্ন

ব্রেকিং নিউজ :
প্রতিনিধি আবশ্যক: অনলাইন পত্রিকা আমার সুরমা ডটকমের জন্য প্রতিনিধি নিয়োগ দেয়া হবে। আগ্রহীরা যোগাযোগ করুন : ০১৭১৮-৬৮১২৮১, ০১৭৯৮-৬৭৬৩০১
অগ্নিগর্ভ গুজরাট: কারফিউ অব্যাহত, আধাসেনা মোতায়েন, বন্ধ ইন্টারনেট

অগ্নিগর্ভ গুজরাট: কারফিউ অব্যাহত, আধাসেনা মোতায়েন, বন্ধ ইন্টারনেট

gu-300x200

আমার সুরমা ডটকম : ভারতের গুজরাট রাজ্যে প্যাটেল সম্প্রদায়কে অন্যান্য অনগ্রসর শ্রেণির অন্তর্ভুক্ত করে সংরক্ষণের দাবিকে কেন্দ্র করে অগ্নিগর্ভ পরিস্থিতির সৃষ্টি হয়েছে। মঙ্গলবার প্যাটেল সম্প্রদায়ের মহাসমাবেশ হওয়ার পরে আহমেদাবাদসহ বিভিন্ন এলাকায় হিংসাত্মক ঘটনা ঘটে। প্যাটেল সম্প্রদায়ের নেতা হার্দিক প্যাটেলকে পুলিশ আটক করার পর থেকে হিংসাত্মক ঘটনা শুরু হয়। সমাবেশের পর অনুমতি ছাড়াই ধর্নায় বসার অভিযোগে পুলিশ তাকে আটক করে। পরে রাতে পুলিশ তাকে ছেড়ে দেয়। পরিস্থিতি সামাল দিতে রাজ্যের বিভিন্ন এলাকায় রাত ২টা নাগাদ কারফিউ জারি করা হয়।

আন্দোলনকারীদের পক্ষ থেকে বুধবার গুজরাট বনধের ডাক দেয়া হয়েছে। রাজ্যের সমস্ত স্কুল-কলেজ আজ বন্ধ রাখার কথা ঘোষণা করা হয়েছে। রাজ্যের উত্তপ্ত পরিস্থিতি মোকাবিলায় বিভিন্ন এলাকায় কারফিউ জারি করে সেনাবাহিনী তলব করা হয়েছে। সতর্কতামূলক ব্যবস্থা হিসেবে বিভিন্ন এলাকায় ইন্টারনেট পরিষেবা বন্ধ রাখা হয়েছে। রাজ্যের পরিস্থিতি নিয়ে কেন্দ্রীয় স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী রাজনাথ সিং মুখ্যমন্ত্রী আনন্দিবেন প্যাটেলের সঙ্গে কথা বলে তাকে সব ধরণের সাহায্যের আশ্বাস দিয়েছেন।

গুজরাটের অগ্নিগর্ভ পরিস্থিতি মোকাবিলায় এরইমধ্যে প্যারা মিলিটারি ফোর্সের পাশাপাশি বিএসএফ এবং র‌্যাপিড অ্যাকশন ফোর্স-এর ৬ কোম্পানি জওয়ান মোতায়েন করা হয়েছে। কেন্দ্রের পক্ষ থেকে আরো ১৬ কোম্পানি বিএসএফ এবং ১৫ কোম্পানি র‌্যাপিড অ্যাকশন ফোর্সসহ অতিরিক্ত আধাসামরিক বাহিনী পাঠানো হচ্ছে। মঙ্গলবার রাতে বিক্ষোভকারীরা রাজ্যের স্বরাষ্ট্রমন্ত্রীর বাড়িতে হামলা চালিয়ে আগুন ধরিয়ে দেয়। প্যাটেল সম্প্রদায়ের উত্তেজিত জনতা আহমেদাবাদ, সুরাট, মেহসেনাসহ বিভিন্ন জেলায় ভাঙচুর চালায়। সুরাটে পলিশের গাড়িসহ অন্যান্য যানবাহনে আগুন লাগানো হয়। বিভিন্ন এলাকায় দোকানপাটে ভাঙচুর চালায় বিক্ষোভকারীরা। পুলিশ কয়েকটি জায়গায় বিক্ষুব্ধ জনতাকে ছত্রভঙ্গ করতে লাঠি চালায় এবং কাঁদানে গ্যাস ছোঁড়ে।

মুখ্যমন্ত্রী আনন্দিবেন প্যাটেল রাজ্যে শান্তি বজায় রাখার জন্য রাজ্যবাসীর প্রতি আহ্বান জানিয়েছেন। প্যাটেল সম্প্রদায়ের নেতা হার্দিক প্যাটেলও সবাইকে শান্ত থাকার আবেদন করেছেন। গুজরাটে প্যাটেল/পাটিদার সম্প্রদায়কে অন্যান্য অনগ্রসর শ্রেণি বা ওবিসি তালিকাভুক্ত করে সংরক্ষণের দাবিতে মঙ্গলবার এক মহাসমাবেশ অনুষ্ঠিত হয়। এতে প্যাটেল সম্প্রাদায়ের ২২ বছর বয়সী তরুণ নেতা হার্দিক প্যাটেল বিজেপিকে হুঁশিয়ারি দিয়ে বলেন, ‘যদি তাদের দাবি মানা না হয় ২০১৭ সালে পদ্মফুল ফুটতে দেব না।’ বিজেপির প্রতীক চিহ্ন হল পদ্মফুল। রাজ্যে ২০১৭ সালে নির্বাচনের দিকে লক্ষ্য রেখে হুঁশিয়ারি দেন তিনি।

প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদির রাজ্য গুজরাট। প্রধানমন্ত্রী হওয়ার আগে তিনি এই রাজ্যের মুখ্যমন্ত্রী ছিলেন। এখন সেখানে বিজেপিনেত্রী আনন্দিবেন প্যাটেলের সরকার ক্ষমতায় রয়েছে। রাজ্যের বর্তমান পরিস্থিতিতে বিজেপি চরম বিড়ম্বনায় পড়েছে বলে বিশ্লেষকরা মনে করছেন।

নিউজটি শেয়ার করুন

© All rights reserved © 2017-2019 AmarSurma.Com
Design & Developed BY ThemesBazar.Com